এবার ঘুষবাণিজ্য ছাড়াই মেধা ও যোগ্যতায় চাকরি

প্রকাশিতঃ ৫:৫৫ অপরাহ্ণ, বুধ, ১১ সেপ্টেম্বর ১৯

Advertisements

বিশেষ সংবাদাতাঃঘুষ ছাড়া নিয়োগে পুলিশ বাহিনী দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এজন্য বাহিনীটিকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।
বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পুলিশের উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ‘কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’ এর কার্যক্রম উদ্বোধনকালে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

পুলিশে নিয়োগে ঘুষবাণিজ্যের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। এবার ঘুষবাণিজ্য ছাড়াই মেধা ও যোগ্যতার ভিত্তিতে নিয়োগে মাঠে নামেন পুলিশ বাহিনীর কর্মকর্তারা, এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ কঠোরতা দেখান তারা। হাতে হাতে এর সফলতাও আসে।
বিশেষ করে কনস্টেবল পদে লোক নিয়োগে চাকরির আবেদন করতে ১০৩ টাকা ফির বাইরে কোনো টাকা না লাগার অনেকগুলো ঘটনা গণমাধ্যমে আসে। আগে যেখানে লাখ লাখ টাকা ঘুষ দেওয়া লাগতো বলে পুলিশ বাহিনীর দুর্নাম ছিল।

পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, সাধারণত পুলিশে লোক নিয়োগের ক্ষেত্রে চিরদিন একটা দুর্নাম ছিল। শুধু পুলিশ কেন সবক্ষেত্রে নিয়োগের ক্ষেত্রে একটা ঘুষ-দুর্নীতির বদনাম রয়েছে। পুলিশ এখানে একটা দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে এবার।
তিনি বলেন, ঘুষ-দুর্নীতি মুক্তভাবে এবার যেভাবে নিয়োগ হয়েছে অতি সাধারণ, দরিদ্র পরিবারের ছেলেমেয়েরাও আজ চাকরি পেয়েছে। সেজন্য আমি বিশেষভাবে পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি জেলায় জেলা, উপজেলা পর্যায়ে যারা দায়িত্বরত ছিলেন, প্রত্যেকে এ ব্যাপারে সততার সঙ্গে, দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্বপালন করে একটা বিশেষ দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। এটা সবাইকে অনুসরণ করতে হবে।

সরকারের অন্য সংস্থাগুলোকেও ঘুষ ছাড়া নিয়োগের মাধ্যমে দৃষ্টান্ত স্থাপন করার নির্দেশ দিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, অন্যরাও এটা অনুসরণ করতে পারে, দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে পারে। যাতে সাধারণ মানুষ সুযোগ পায়।
বিভিন্ন ক্ষেত্রে সফলতা ও কর্তব্যনিষ্ঠার জন্য পুলিশ বাহিনীর প্রশংসা করেন প্রধানমন্ত্রী।
বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্টের (বিপিডব্লিউটি) উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত কমিউনিটি ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হওয়ায় দেশে সরকারি-বেসরকারি মিলে মোট ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৯টি।
কমিউনিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিহুল হক চৌধুরী।
যাত্রা শুরুর দিন থেকেই রাজধানীর পুলিশ প্লাজা কনকর্ডে করপোরেট শাখাসহ মতিঝিল, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, হবিগঞ্জ ও চট্টগ্রামে এ ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হয়।

গণভবন প্রান্তে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, অর্থমন্ত্রী আহম মস্তফা কামাল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।
সঞ্চালনা করেন প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব মো. নজিবুর রহমান।
গণভবনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচটি ইমাম, র‌্যাবের মহাপরিচালকসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থাগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তা এবং সরকারের বিভিন্ন সেক্টরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা
উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে কমিউনিটি ব্যাংকের করপোরেট শাখা গুলশান এবং রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়াম থেকে পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন।

আপনার মতামত জানানঃ