চৌগাছায় ফাঁসতলা-বাদেখানপুর (৩ কিলো) রাস্তাটির করুন দশায় উপরমহল নিশ্চুপ

প্রকাশিতঃ ১০:০৩ অপরাহ্ণ, শনি, ১৫ জুন ১৯

চৌগাছা  (যশোর) প্রতিনিধিঃ যশোরের চৌগাছা উপজেলার নারায়ণপুর ইউনিয়নের একটি অবহেলিত রাস্তার নাম ফাঁসতলা-বড়খানপুর।
ইউনিয়নের ফাঁসতলা, গুয়াতলী, কেসমতখাপুর, হোগলডাঙ্গা ও বাদেখানপুর গ্রামের মানুষের যাওয়া আসার একমাত্র পথ এটি। কিন্তু রাস্তাটির এতই করুণ অবস্থা যে, সকলেই যাত্রী হয়ে যেতে ভয় পায়। ইতিমধ্যে বারংবার এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে রাস্তাটি সংস্কারের দাবী জানানো হয়। কিন্তু ঊর্ধ্বতন মহলের কোনোই ভূমিকা দেখা যায় না। এলাকাবাসীর অধিকাংশের মতবাদ এই যে, বর্তমান সরকার সারা দেশেই রাস্তা সংস্কারের কাজ করছে। তাহলে আমরা কেনো এই পাওয়া থেকে পিছিয়ে থাকবো।
এলাকাবাসী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ফাঁসতলা-বাদেখানপুর পিচ রাস্তাটির ৩ কিঃমিঃ এর মধ্যে ২.৫ কিঃমিঃ  রাস্তাটি প্রায় কোন অংশেই পিচ নেই। সারা রাস্তায় ছোট বড় গর্ত, মাঝে মাঝে ইটের খোয়া পর্যন্ত নেই। বড়খানপুর গ্রামের সার ব্যবসায়ি আবুল কালাম আজাদ এ প্রতিবেদককে জানান, রাস্তাটি বছর দশেক আগে পিচকরণ করা হয়। এর পর কোন প্রকার সংস্কার ছাড়াই চলছে এই রাস্তাটি। আমরা আর এই কষ্ট সইতে পারছিনা। তাই আমাদের দীর্ঘদিনের দাবি দ্রুততম সময়ের মধ্যে রাস্তাটি সংস্কার করা হোক। নাম প্রকাশ না করা শর্তে একজন ভ্যান চালক এ প্রতিবেদক কে জানান, মাঝে মাঝে শুনি উপরের লোকজন আসছে রাস্তাটি মাপতে কিন্তু সময় চলে যায়, রাস্তা সংস্কারণ হয়না।
রাস্তাটির বিষয়ে নারায়নপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীন মুকুলের কাছে জিজ্ঞাসা করলে তিনি বলেন, রাস্তাটির বিষয়ে আমার কাছে তেমন কোনো ইনফরমেশন নেই। রাস্তাটি সম্পর্কে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী মাসুদ চৌধুরী হয়তো ভালো বলতে পারবেন। তবে তিনারা যদি ব্যবস্থা না নেন। তখন আমরা চেষ্টা করবো রাস্তাটি করার।
এমতাবস্থায় এলাকাবাসীর দির্ঘ নিশ্বাস ফেলা কষ্ট নিয়ে সরকারের উপরমহলের কাছে দাবী, সাধারণের কষ্টকে লাঘব করতে রাস্তাটি দ্রুততম সময়ের মধ্যে নতুন করে পিচকরণ করা হোক।

আপনার মতামত জানানঃ