জাবি ছাত্রীকে বাসে যৌন হয়রানি, যুবককে গণধোলাই

প্রকাশিতঃ এপ্রিল ২৫, ২০১৯ । ১১:৪৫
আপডেটঃ এপ্রিল ২৫, ২০১৯ । ১১:৪৫

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদকঃ জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের এক ছাত্রীকে বাসের মধ্যে যৌন হয়রানি ও উত্ত্যক্ত করায় এক যুবককে গণপিটুনি দিয়েছে বিক্ষুদ্ধ শিক্ষার্থীরা। বুধবার (২৪ এপ্রিল) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত যুবক মোহাম্মদ আলী (২৪) সাভারের একটি পোশাক কারখানায় কাজ করেন। তিনি পাবনার ঈশ্বরদীর মোহাম্মদ রফিকের ছেলে।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, দুপুরে ওই ছাত্রী মৌমিতা বাসে ধানমন্ডি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরছিলেন। পথে বাসের মধ্যে মোহাম্মদ আলী ওই ছাত্রীর সঙ্গে অশোভন আচরণ করেন এবং মোবাইলে একাধিকবার ছবি তোলেন। বিষয়টি বুঝতে পেরে ওই ছাত্রী বাসযাত্রীদের সহযোগিতায় উত্ত্যক্তকারীর কাছে থেকে মোবাইল ফোনটি নিয়ে তার কয়েকটি ছবি তুলেছে বলে নিশ্চিত হন।

একই সঙ্গে তিনি মোবাইল ফোনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকে তার সহপাঠীদের ডেকে আনেন। পরবর্তীতে বাস প্রধান ফটকে আসলে তার সহপাঠীরা উত্ত্যক্তকারীকে বাস থেকে নামিয়ে গণপিটুনি দেয়। খবর পেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে অভিযুক্তকে উদ্ধার করে নিরাপত্তা অফিসে নিয়ে যান।

অভিযোগকারী শিক্ষার্থী বলেন, বাসের মধ্যে আমার সঙ্গে অশোভন আচরণ এবং মোবাইল ফোনে অনেকবার গোপনে ছবি তোলে ওই যুবক।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন বলেন, অভিযোগকারী যেহেতু তাকে ক্ষমা করে দিয়েছেন এবং এ বিষয়ে কোনো মামলা করেননি, তাই মুচলেকা নিয়ে যুবককে তার পরিবারের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ