ডেঙ্গুকে জাতীয় দুর্যোগ ঘোষণার আহ্বান ইনুর

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ডেঙ্গুকে জাতীয় বিপদ, দুর্যোগ হিসেবে ঘোষণা দিয়ে এই ডেঙ্গু মোকাবেলায় জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিল গঠনের দাবি জানিয়েছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

তিনি বলেন, ডেঙ্গু মোকাবেলায় জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিল গঠন করা সময়ের দাবি।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে পার্টির কার্যালয়ের কর্নেল তাহের মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি জানান ইনু।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য উপস্থাপন করেন দলের সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার। সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন দলের সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু।

ডেঙ্গুকে জাতীয় বিপদ, দুর্যোগ হিসেবে ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিল গঠনের প্রস্তাব করছেন কেন?

সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের জবাবে হাসানুল হক ইনু বলেন, যেহেতু ডেঙ্গুর ব্যাপকতা বেড়েছে, ডেঙ্গু ঢাকার বাইরেও ছড়িয়ে পড়েছে, যেহেতু ডেঙ্গুর প্রকোপ প্রলম্বিত হবার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে, যেহেতু আগাম সতর্কতার পরও ডেঙ্গু মোকাবেলার প্রস্তুতি ও সক্ষমতায় ঘাটতি রয়েছে, তাই শুধু ঢাকার দুইটি সিটি কর্পোরেশন ও স্বাস্থ মন্ত্রণালয়ের ওপরে দায়িত্ব ছেড়ে না দিয়ে জাতীয় ভিত্তিতে সমন্বিতভাবে ডেঙ্গু মোকাবেলায় এই জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিল গঠন করা সময়ের দাবি।

আরেক প্রশ্নের উত্তরে ইনু বলেন, ডেঙ্গু পরিস্থিতি মোকাবেলায় এখন পর্যন্ত যতটুকু হয়েছে, তা যথেষ্ট নয়, সমন্বিতও নয়।

ভিন্ন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ঢাকার দুই মেয়রকে পদত্যাগ করানোর চাইতেও এখন জরুরি গাফিলতি-ব্যর্থতা ঝেরে ফেলে কাজ করা।

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মীর হোসাইন আখাতর, সহ-সভাপতি ফজলুর রহমান বাবুল, স্থায়ী কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান শওকত, নুরুল আকতার, সহ-সভাপতি সফি উদ্দিন মোল্লা, শহীদুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শওকত রায়হান, নইমুল আহসান জুয়েল এবং সহ-দফতর সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন প্রমুখ।

লিখিত বক্তব্যে শিরীন আখতার বলেন, ঢাকা ও ঢাকার বাইরে প্রায় সব জেলায় ডেঙ্গু রোগীর সংখ্যা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ঢাকা ও ঢাকার বাইরের জেলাগুলোতে ডেঙ্গুতে মানুষের দুঃখজনক মৃত্যুর ঘটনা ঘটছে। খোদ রাজধানীতেই ডেঙ্গুর চিকিৎসা সেবার অপ্রতুলতা ও হিমশিম অবস্থা চলছে। ঢাকার বাইরে ডেঙ্গু চিকিৎসার প্রয়োজনীয় সামর্থে্যর অভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। ঢাকায় এডিস মশার বিস্তার প্রতিরোধে এখনও কার্যকর কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। বরং এ ক্ষেত্রে গাফিলতি ও ব্যর্থতা এখনও রয়েছে।

তিনি বলেন, দুর্ভাগ্যজনকভাবে মানুষের বিপদকে পুঁজি করে কিছু বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা সেবার নামে ডাকাতি এবং মশা মারার স্প্রে, ওষুধ নিয়ে মজুতদারি ব্যবসা শুরু হয়েছে। মানুষের মধ্যে হতাশা, আতঙ্ক, উদ্বেগ বেড়েই চলেছে। এরকম বিপদ ও দুর্যোগকালে শুধু ঢাকার দুইটি সিটি কর্পোরেশন এবং স্বাস্থ মন্ত্রণালয়ের ওপর সব দায়দায়িত্ব ছেড়ে দেয়া ভুল ও আত্মঘাতি হবে।

জাসদ মনে করে, ডেঙ্গু পরিস্থিতি একটি জাতীয় বিপদ ও দুর্যোগ হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। তাই জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা আইন ২০১২ এর ২ (২) ধারা অনুযায়ী ডেঙ্গুকে আপদ এবং ২ (১১) ধারা অনুযায়ী দুর্যোগ ঘোষণা করা ও ২২ (১) ধারা অনুযায়ী ঢাকাসহ সংলগ্ন অঞ্চলকে দুর্গত এলাকা হিসাবে ঘোষণা করে ৪ (১) ও (২) ধারা অনুযায়ী প্রধানমন্ত্রীকে সম্পৃক্ত করে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কাউন্সিল গঠন করার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।

এর পাশাপাশি ডেঙ্গু প্রতিরোধে সিঙ্গাপুর, কলকতা, ফিলিপাইন, চীনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানানো হয় লিখিত বক্তব্যে। এর পাশাপাশি জাসদ

অবিলম্বে ঢাকার সব স্কুল, কলেজ, মাদরাসা, বিশ্ববিদ্যালয়, কোচিং সেন্টারে ছুটি দেয়ার আহ্বান জানানো হয় সংবাদ সম্মেলনে।

আপনার মতামত জানানঃ