দর্শকের ঢল, যে কারণে অ্যাভেঞ্জার্স দেখতে হলে

বিনোদন প্রতিবেদকঃ বিশ্বজুড়ে প্রায় ৫ হাজার সিনেমা হলে গত ২৬ এপ্রিল মুক্তি পেয়েছে ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ সিরিজের সর্বশেষ কিস্তি ‘অ্যাভেঞ্জার্স : এন্ডগেম’ চলচ্চিত্রটি। এই ছবি নিয়ে উৎসাহ-উদ্দীপনার জোয়ার দেখা যাচ্ছে দর্শকের মধ্যে।

আমেরিকা তো বটেই, চীন ও ভারতেও ছবিটি রাজকীয় ব্যবসা করেছে গেল দুইদিনে। বাংলাদেশেও মুক্তি পেয়েছে ‘অ্যাভেঞ্জার্স’। এখানেও ছবিটি নিয়ে তুমুল আগ্রহ দেখা গেল দর্শকের।

ছবি মুক্তির আগের দিন ভোর রাত থেকে হাজার হাজার দর্শক স্টার সিনেপ্লেক্সের (বসুন্ধরা সিটি ও রাইফেল স্কয়ার) দুটি শাখায় লাইন দিয়ে অগ্রিম টিকিট কিনেছেন।

কেন? কেন এভাবে হুমিড়ি খেয়ে পড়েছেন দর্শক ছবিটি দেখতে? কারণ হিসেবে ছবির প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি দাবি করেছে ছবিটির মূল খলনায়ক থানোস। তাকে পরাজিত করতে এক হয়ে লড়াই করে মার্ভেল কমিকসের সব সুপারহিরোরা। ছবিতে অত্যন্ত শক্তিশালী চরিত্রে আছে থানোস।

বারবার তাকে হত্যা করতে গিয়ে সুপারহিরোরা ব্যর্থ হয়। নতুন উদ্যমে থানোসকে আক্রমণ করে তারা। সুপারহিরোদের সম্মিলিত এই অ্যাকশন উপভোগ করার জন্যই ছবিটিকে ঘিরে বাড়তি উৎসাহ উদ্দীপনা কমিক ফ্যানদের মধ্যে।

পাশাপাশি এই ছবি দিয়েই ২২টি গল্পের ‘অ্যাভেঞ্জার্স’ সিরিজের সমাপ্তি হচ্ছে। সুপারহিরোদের একসাথে আর দেখার সুযোগ পাবেন না দর্শক। দীর্ঘদিন ধরে মার্ভেল কমিকসকে অনুসরণ করে আশা ভক্তরা এই সিরিজের শেষ কিস্তিটি হলে গিয়ে দেখার সুযোগা কিছুতেই হাতছাড়া করতে চাইছেন না। তাই বিশ্বের সব দেশের সব সিনেমা হলেই হুমড়ি খেয়ে পড়ছেন দর্শক।

ছবিতে ভিলেন থানোসের চরিত্রে অভিনয় করেছেন জোস ব্রোলিন। ক্যাপ্টেন আমেরিকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন ক্রিশ ইভানস। রবার্ট ডাউনি জুনিয়র আছেন আইরন ম্যান চরিত্রে। অত্যন্ত শক্তিশালী নারী সুপারহিরো ক্যাপ্টেন মার্ভেল হয়ে পর্দা কাঁপাচ্ছেন ব্রি লারসন।

এছাড়াও স্পাইডার ম্যাান চরিত্রে টম হল্যান্ড, থর চরিত্রে ক্রিস হেমসওর্থ, অ্যান্ট ম্যান চরিত্রে পল রুড, ডক্টর স্ট্রেঞ্জ চরিত্রে বেনেডিক্ট কাম্বারব্যাচসহ বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন ডন ছেডলে, চ্যাডউইক বোসমান, এলিজাবেথ ওলসেন, এন্থনি ম্যাকিয়ে, সেবাস্টিয়ান স্ট্যান, টম হিডেলস্টোন, ড্যানায় গুড়িরা, লেটিটিয়া রাইট, ডেভ বাটিস্টা, জোয়ে সালডানা, ক্রিস প্রাট, জোয়ে সালডানা, এভাঞ্জেলিনা লীলি, জন ফেব্রেয়াউ, পল বেট্টানি প্রমুখ।

আপনার মতামত জানানঃ