পূজারা একাই টেনে নিলেন ভারতকে

প্রকাশিতঃ ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ । ১৬:২৭
আপডেটঃ ডিসেম্বর ৬, ২০১৮ । ১৬:২৭

বিশেষ সংবাদদাতাঃ চেতেশ্বর পূজারা একাই লড়লেন, ভারতকে টেনে তুলতে যথাসাধ্য চেষ্টা করলেন। সেই লড়াইয়ে অনেকটাই সফল ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। তার দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে ভর করেই বিপর্যয়ে পড়া ভারত অ্যাডিলেড টেস্টের প্রথম দিন শেষ করেছে ৯ উইকেটে ২৫০ রান নিয়ে।

টস ভাগ্যটা ভারতের পক্ষেই ছিল। অ্যাডিলেডের পিচ সাধারণত ব্যাটিং বান্ধব হয়, সে ভাবনা থেকেই হয়তো আগে ব্যাট করা। তবে অধিনায়ক কোহলির সিদ্ধান্তের যৌক্তিকতা দেখাতে পারেননি ভারতের ব্যাটসম্যানরা।

অজি বোলারদের তোপে ১৩ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে বসে সফরকারি দল, একটা সময় ১২৭ রানের মধ্যে ৬ ব্যাটসম্যান হারিয়ে দেড়শোর আগেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় ছিল সফরকারিরা।

দিনের দ্বিতীয় ওভারেই আলগা ড্রাইভে তৃতীয় স্লিপে ধরা পড়েছেন লোকেশ রাহুল। জস হ্যাজলউডের শিকার হয়ে তিনি ফিরেছেন মাত্র ২ রানে। আরেক ওপেনার মুরালি বিজয়ও (১১) বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। মিচেল স্টার্কের ১৪৫ কিলোমিটারের ডেলিভারিতে ব্যাট ছুুঁইয়ে উইকেটের পেছনে তিনি হয়েছেন ক্যাচ।

এরপর প্যাট কামিন্সের বলে গালিতে উসমান খাজার এক হাতের ক্যাচ হয়েছেন বিরাট কোহলি। ভারতীয় অধিনায়ক করেন মোটে ৩ রান। দেখেশুনে খেলছিলেন আজিঙ্কা রাহানে। তিনিও ব্যাটে বল লাগানোর লোভ সামলাতে পারেননি। হ্যাজলউডের বলে ১৩ রান করে দ্বিতীয় স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

ছয় নাম্বারে নামা রোহিত শর্মা তার ওয়ানডে খেলার স্টাইলটাই যেন নিয়ে আসতে চেয়েছিলেন টেস্টে। তবে টেস্ট ক্রিকেটটা যে ওতটা সহজ নয়, আরও একবার টের পেলেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। চারের চেয়ে ছক্কা হাঁকাতেই তিনি মনোযোগি ছিলেন বেশি।

নাথান লিয়নের যে ওভারে আউট হয়েছেন, সেটিতেও আগের বলে ছক্কা মেরেছিলেন। পরের বলে একইভাবে মারমুখী হতে গিয়ে হ্যারিসের ক্যাচ হয়েছেন রোহিত। ৬১ বলে ২ বাউন্ডারি আর ৩ ছক্কায় তিনি করেন ৩৭ রান।

সতীর্থদের এই আসা যাওয়ার মাঝেও নিজের টেস্ট মেজাজটা ধরে এগিয়েছেন চেতেশ্বর পূজারা। প্রথম রানটি নিতে তিনি খেলেন ৩০টি বল। ষষ্ঠ উইকেটে রিশাভ পান্তকে নিয়ে ৪১ রানের একটি জুটিও গড়েছিলেন। কিন্তু ওই যে, ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের তেড়েফুড়ে খেলার প্রবণতা! পান্তও ৩৮ বলে ২৫ রানের ওয়ানডেসুলভ এক ইনিংস খেলে নাথান লিয়নের শিকার হয়ে ফিরেছেন।

সপ্তম উইকেটে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে নিয়ে আবার ৬২ রানের জুটি পূজারার। ২৫ রান কর অশ্বিন আউট হন কামিন্সের বলে। এরই মধ্যে নিজের সেঞ্চুরিটা তুলে নিতে ভুল করেননি পূজারা। যেটি তার টেস্ট ক্যারিয়ারের ১৬তম সেঞ্চুরি।

একই দিনে টেস্টে ৫ হাজার রানও ছোঁয়া হয়ে গেছে পূজারার। ১০৮ ইনিংসে এই মাইলফলক ছুঁয়েছেন তিনি। ভারতের ১২তম ব্যাটসম্যান হিসেবে এই কীর্তি গড়েছেন। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটেও ১৪ হাজার রান হয়েছে পূজারার।

শেষতক পূজারার এই লড়াকু ইনিংসটা থেমেছে দুর্ভাগ্যজনক রানআউটে। ওই আউটের পরই দিনে খেলা সমাপ্তি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। ২৪৬ বলে ৭ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় গড়া পূজারার ইনিংসটি ছিল ১২৩ রানের।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে ২টি করে উইকেট নিয়েছেন মিচেল স্টার্ক, জস হ্যাজলউড, প্যাট কামিন্স আর নাথান লিয়ন।

আপনার মতামত জানানঃ