বাউফলে অবৈধ যানে বৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ, ভোগান্তির শিকার সাধারন গ্রাহক !

কহিনুর বাউফল (পটুয়াখালী) সংবাদ দাতা ঃ পটুয়াখালী জেলার বাউফলে অবৈধ ভাবে চালিত হচ্ছে প্রায় ৫হাজার ব্যাটারী চালিত অটো গাড়ি। বিদ্যুৎ চুরি করে করে কতিপয় অসাদু ব্যক্তি অটো গাড়ির ব্যাটারী চার্জ এবং চার্জের জন্য ঘর ভাড়া দিয়ে লাভবান হলেও ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন গ্রাহকরা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে, বাউফলে প্রায় ৫ হাজার ব্যাটারি চালিত অটো গাড়ি রয়েছে। এক একটি গাড়িতে ১২ ভোল্টের ৫টি করে মোট ৫ হাজার অটো গাড়িতে ২৫ হাজার ব্যাটারী রয়েছে। প্রতিদিন রাতে এসব গাড়িতে গড়ে ১২ ঘন্টা করে ৩ লাখ ভোল্টের ব্যাটারী চার্জ করা হচ্ছে।

সূত্রটি আরও জানায়, পৌর শহরসহ উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে মোট দেড় হাজার পয়েন্টে অটো গাড়ির ব্যাটারি চার্জ করা হয়। রাত ৭ টা থেকে পরের দিন সকাল ৭টা পর্যন্ত ১২ ঘন্টা বিদ্যুতের সাহায্যে ব্যাটারী চার্জ করা হয়। অধিকাংশ আবাসিক মিটার থেকে ব্যাটারী চার্জ করা হয়। এ ছাড়াও বিদ্যুৎ লাইন থেকে হুকিং করে ব্যাটারী চার্জ করায় সরকার বিপুল পরিমান রাজস্ব আয় থেকে বি ত হচ্ছেন। অপরদিকে একটি অটো গাড়ি চার্জের জন্য পয়েন্টগুলোতে ঘর ভাড়া বাবদ মাসে ৬শ’ টাকা করে ৫ হাজার গাড়ি থেকে ৩০ লাখ টাকা আদায় হচ্ছে। পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বাউফল জোনাল অফিসের এক শ্রেণীর অসাদু কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সাথে মাসওয়ারা চুক্তিতে এ অবৈধ কাজটি করা হচ্ছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বাউফল জোনাল অফিসের এক কর্মকর্তা জানান, এসব অটো গাড়িতে প্রতি রাতে প্রায় ৩ লাখ ভোল্টের ব্যাটারি চার্জ করা হয়। যার ফলে লো-ভোল্টের কবলে পরতে হয় গ্রাহকদের। এ ছাড়াও ওভার লোডের কারণে প্রায়ই ট্রান্সফর্মার বিকল হয়ে যায়। যার খেসারত দিতে হয় সংশ্লিষ্ট ট্রান্সফর্মারের আওতাধিন গ্রাহকদের। নতুন ট্্রান্সফর্মারের জন্য তাদেরকে গুনতে হয় বাড়তি টাকা ।

এ ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জোনাল অফিসের অভিযোগ কেন্দ্রে কথা বলেও কোন সদোত্তর পাওয়া যায়নি।

আপনার মতামত জানানঃ