বিশ্ব ইজতেমার দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনায় ৭ ডিসেম্বর ৫দিন ব্যাপী জোড় ইজতেমা শুরু

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ২৭, ২০১৮ । ১৫:০৬
আপডেটঃ নভেম্বর ২৭, ২০১৮ । ১৫:০৬

ধর্ম ডেস্কঃ ঘনিয়ে আসছে টঙ্গির বিশ্ব ইজতেমা। ইজতেমা মাঠের প্রস্তুতি ও বিশ্ব ইজতেমার দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনায় আগামী ৭ ডিসেম্বর ৫দিন ব্যাপী জোড় ইজতেমা শুরু হবে। তাবলিগের দাওয়াতি কাজকে সঠিক পথে পরিচালিত করার লক্ষ্যে ওলামায়ে কেরামের দিক-নিদের্শনায় বছরব্যাপী সারাদেশে চলছে ওয়াজাহাতি জোড়।

বিশ্ব ইজতেমার আগে প্রস্তুতি গ্রহণে টঙ্গির ইজতেমা মাঠে ৫দিন ব্যাপী জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। অন্যান্য বছরের ন্যয় এ বছর ওলামা ও কাকরাইল মারকাজের মুরব্বিদের আয়োজনে আগামী ৭ ডিসেম্বর (শুক্রবার) ৫দিন ব্যাপী এ জোড় অনুষ্ঠিত হবে।

২০১৯ সালের বিশ্ব ইজতেমাকে সফল করার লক্ষ্যে ৭ ডিসেম্বর জোড় শুরু হয়ে শেষ হবে ১১ ডিসেম্বর (মঙ্গলবার) আখেরি মোনাজাতের মাধ্যমে শেষ হবে।

এ বছর (২০১৯) টঙ্গির বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে ১৮, ১৯ ও ২০ জানুয়ারি এবং দ্বিতীয় পর্ব ২৫, ২৬ ও ২৭ তারিখ অনুষ্ঠিত হবে। কাকরাইল মারকাজের মুরব্বি ও ওলামাগণ সরকারের সঙ্গে পরামর্শক্রমে এ তারিখ নির্ধারণ করেন।

আরও পড়ুন > যেভাবে বাংলাদেশে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হলো

উল্লেখ্য যে, সাধারণত বিশ্ব ইজতেমার ৪০ দিন আগে জোড় ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। এ জোড় ইজতেমায় তাবলিগের সেসব সাথীরেই অংশ গ্রহণ করতে পারেন যারা তিন চিল্লার সম্পন্ন করে থাকেন। তবে এবারের বিশ্ব ইজতেমার আয়োজনের নেতৃত্বে কাকরাইল মারকাজের মুরব্বিদের সঙ্গে থাকছে দেশের সর্বস্তরে আলেম-ওলামা।

৫ দিনের জোড়ে অংশগ্রহণকারী তাবলিগের তিন চিল্লার সাথীদের কিছু অংশের স্বেচ্ছাশ্রমে বিশ্ব ইজতেমার মাঠের প্রস্তুতি কাজ সম্পন্ন করা হয়। আর বাকীদের মধ্য থেকে ইচ্ছুকরা তাবলিগের দাওয়াতি কাজ নিয়ে দেশব্যাপী ময়দানে বেরিয়ে পড়েন। তবে এবারের জোড় থেকে কোনো জামাত বের হবে কিনা তা এখনো নিশ্চিত নয়।

আপনার মতামত জানানঃ