ভুয়া খবর শনাক্ত এবং এ সমস্যা ঠেকাতে ২০টি গবেষক দল গঠন করেছে হোয়াটসঅ্যাপ

প্রকাশিতঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৮ । ১৫:১২
আপডেটঃ নভেম্বর ১৪, ২০১৮ । ১৫:১২

তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্কঃ ভুয়া খবর শনাক্ত এবং এ সমস্যা ঠেকাতে ২০টি গবেষক দল গঠন করেছে স্মার্টফোনের জনপ্রিয় ম্যাসেঞ্জার হোয়াটসঅ্যাপ। এ জন্য ভারত, ব্রিটেনসহ বিভিন্ন দেশ থেকে বেছে নেওয়া হয়েছে গবেষকদের।

চলতি সপ্তাহে ক্যালিফর্নিয়ায় এ বিষয়ে বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। হোয়াটসঅ্যাপের মাধ্যমে ভুয়া খবর ছড়ানোয় ভারতে এখন পর্যন্ত ৩০ জনের প্রাণ গেছে। দেশটির সরকার বিষয়টি নিয়ে অবিলম্বে পদক্ষেপ গ্রহণ করতেও বলেছে ফেসবুকের মালিকানাধীন এ অ্যাপ কর্তাদের।

হোয়াটসঅ্যাপে নজরদারি ও ভারতে পিটিয়ে খুনের বিষয়টি দেখবেন লন্ডন স্কুল অব ইকনমিকস অ্যান্ড পলিটিক্যাল সায়েন্সের শকুন্তলা ব্যানাজি ও রামনাথ ভট্ট, বেঙ্গালুরুর সংস্থা ‘মারা’-র অনুষী আগরওয়াল ও নিহাল পাসানহা। এছাড়া রাঁচী ও দিল্লির গবেষকেরা ডিজিটাল সাক্ষরতা ও ভুল তথ্যের প্রভাব দেখবেন।

হোয়াটসঅ্যাপের প্রধান গবেষক মৃণালিনী রাও বলছেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশের গবেষকদের এই কাজ থেকে আমরা উপকৃত হব। ভুল তথ্য ছাড়ানো ঠেকানোর লক্ষ্যে অ্যাপটিতে বদল আনতেও সাহায্য করবে।’

বিবিসি তার এক গবেষণায় বলছে, ভারতে জাতীয়তাবাদের উত্থানের কারণে সাধারণ লোকজন ফেক নিউজ বা ভুয়া খবর ছড়িয়ে দিচ্ছে। অনেক ক্ষেত্রে জাতীয়তাবাদ চাঙ্গা করতে পারে -এ রকম আবেগকে প্রকৃত খবরের চেয়েও বেশি গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। ভারত ছাড়াও কেনিয়া এবং নাইজেরিয়াতেও ভুয়া খবরের বেশ প্রভাব রয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ