মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান বাড়ানোর নির্দেশ

প্রকাশিতঃ ১:৫৬ অপরাহ্ণ, বুধ, ১১ সেপ্টেম্বর ১৯

Advertisements

বিশেষ সংবাদাতাঃ সারাদেশে মাদকবিরোধী অভিযান আরও বাড়াতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বুধবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকালে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে পুলিশের উদ্যোগে উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত ‘কমিউনিটি ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড’ এর কার্যক্রম উদ্বেধনকালে এ নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলছে এবং মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চলবে। মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান আরও বেশি বাড়াতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই মাদক একেকটা পরিবারকে ধ্বংস করে দেয়। সমাজকে ধ্বংস করে দেয়। এমনকী মাদকের জন্য ছেলে মাকে মেরে ফেলে, ভাই ভাইকে মেরে ফেলে, বাবাকে মেরে ফেলে। এ ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে এর ওপর অভিযান আমাদের আরও বেশি করতে করতে হবে।
বাংলাদেশ পুলিশ কল্যাণ ট্রাস্টের (বিপিডব্লিউটি) উদ্যোগে প্রতিষ্ঠিত কমিউনিটি ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হওয়ায় দেশে সরকারি-বেসরকারি মিলে মোট ব্যাংকের সংখ্যা দাঁড়ালো ৫৯টি।

কমিউনিটি ব্যাংকের চেয়ারম্যান বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শকমোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী। ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মশিহুল হক চৌধুরী।

যাত্রা শুরুর দিন থেকেই রাজধানীর পুলিশ প্লাজা কনকর্ডে করপোরেট শাখাসহ মতিঝিল, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর, হবিগঞ্জ ও চট্টগ্রামে এ ব্যাংকের কার্যক্রম শুরু হয়।
২০১৮ সালের ২৯ অক্টোবর অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদের সভায় নতুন এ ব্যাংকের কার্যক্রম পরিচালনার অনুমোদন দেওয়া হয়। ওই বছরের ১ নভেম্বর সেটিকে তফসিলি ব্যাংক হিসেবে তালিকাভুক্ত করে বাংলাদেশ ব্যাংক।
গণভবন প্রান্তে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তফা কামাল, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন।
স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশের মহাপরিদর্শক ড. মোহাম্মদ জাবেদপাটোয়ারী।

গণভবনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম, র‌্যাবের মহাপরিচালকসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী সংস্থাগুলোর শীর্ষ কর্মকর্তা এবং সরকারের বিভিন্ন সেক্টরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
উদ্বোধন শেষে প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সে কমিউনিটি ব্যাংকের করপোরেট শাখা গুলশান এবং রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়াম থেকে পুলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেন।

আপনার মতামত জানানঃ