হাতপাতালেই ডেঙ্গু

প্রকাশিতঃ ৯:৫৭ অপরাহ্ণ, বুধ, ৭ আগস্ট ১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক: ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীরা যেখানে চিকিৎসা নেবেন, সেই হাসপাতালেই পাওয়া গেলো এডিস মশার প্রজননস্থল ও লার্ভা। এ যেন সর্ষের মধ্যেই ভূত থাকার মতো অবস্থা। হাসপাতালগুলো হলো উত্তরার ল্যাব এইড ও ক্রিসেন্ট এবং মিরপুরের ইসলামী ব্যাংক হাসপাতাল।

বুধবার (৮ আগস্ট) পৃথক দুই অভিযানে তিনটি হাসপাতালে এডিস মশার প্রজননস্থল ও লার্ভা পায় ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) দু’টি ভ্রাম্যমাণ আদালত। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ডিএনসিসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এএসএম মামুন।

আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা (আনিক)-১ সেলিম ফকিরের নেতৃত্বে পরিচালিত ভ্রাম্যমাণ আদালত রাজধানীর উত্তরার ল্যাব এইড হাসপাতাল ও ক্রিসেন্ট হাসপাতালে এডিস মশার লার্ভা খুঁজে পায়। এ অপরাধে ল্যাব এইডকে পাঁচ লাখ ও ক্রিসেন্টকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করা হয়।

একই সঙ্গে কিংফিশার নামে একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে ও একটি ফুলের দোকানে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় তাদের যথাক্রমে ৩০ হাজার ও ১৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

অন্যদিকে, এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় ডিএনসিসির মিরপুর অঞ্চলের আনিক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এসএম শফিউল আজম ইসলামী ব্যাংক হাসপাতালকে ৭০ হাজার টাকা ও একটি টায়ারের দোকানকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

গুলশানে ডিএনসিসির প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আব্দুল হামিদ মিয়া ডিপার্টমেন্টাল স্টোর ল্যাভেন্ডারে এসি ও ফ্রিজের পানি জমা হয়ে সেখানে প্রচুর এডিস মশার লার্ভা খুঁজে পান। তিনি ল্যাভেন্ডারকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেন।

একই অপরাধে ডিএনসিসির সম্পত্তি কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. সগীর হোসেন নাভানা রিয়েল এস্টেটকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এছাড়া, খাজানা মিঠাই, দিগন্ত মানি এক্সচেঞ্জ ও ব্রেড অ্যান্ড বিয়ন্ড নামে তিনটি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স না থাকায় প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। অপরিচ্ছন্ন পরিবেশে রান্না করায় খুশবু বিরানীকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

আপনার মতামত জানানঃ