নিউইয়র্কে সাকিবের সঙ্গে ছবি তুলতে টিকিট, দীর্ঘলাইন

নিউজ ডেক্স : বিশ্বখ্যাত অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের সঙ্গে ছবি তুলতে যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে টিকিট কেটে লাইন দিয়েছেন অন্তত দুইশত মানুষ। শো টাইম মিউজিক আয়োজিত ‘সাকিব আল হাসানের সঙ্গে অন্তরঙ্গ আড্ডা’ শিরোনামের একটি অনুষ্ঠানে শুক্রবার (১৯ জুলাই) রাতে নন্দিত এই ক্রিকেটারের সঙ্গে ছবি তোলার হিড়িক পড়ে।

একশ ডলারের প্রবেশ মূল্য দিয়ে সাকিবের সঙ্গে রাতের খাবারসহ আলাপচারিতায় অংশ নেয়া ও ছবি তোলার সুযোগ পান প্রবাসীরা। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন শামিম আল আমিন ও আয়োজক আলমগীর খান আলম।

সাকিব আল হাসান অনুষ্ঠানে প্রবাসীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন। সাংবাদিক নাজমুল আহসানের এক প্রশ্নের উত্তরে সাকিব বলেন, ‘আমার স্বপ্ন আমার নেতৃত্বে আগামী বিশ্বকাপ জয়লাভ করা।’ তিনি আরও বলেন, ‘আমি নিউইয়র্কে মানুষের ভালোবাসায় মুগ্ধ, আপ্লুত। এর আগে শো টাইমের চারটি অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছি। আর মানুষের ভালোবাসার জন্যই এই প্রথম কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিতে লন্ডন থেকে নিউইয়র্ক চলে এসেছি।’

আয়োজক আলমগীর খান আলম বলেন, ‘নিউইয়র্কে বড় বড় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও মানুষজন টিকিট কেটে আসতে চায় না। সেখানে সাকিবকে ভালোবেসে মানুষ যেভাবে পরিবারসহ অংশগ্রহণ করেছে তাতে এমন আয়োজন করার উৎসাহ আমরা আরও পাই। সাকিব আল হাসানের প্রতি আমাদের কৃতজ্ঞতা, কারণ আমরা বলামাত্রই তিনি অনুষ্ঠানে আসতে রাজি হয়েছেন। তিনি হাসিমুখে আন্তরিকভাবে দুইশোর বেশি মানুষের সঙ্গে একক ছবি তুলেছেন।’

স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণে স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে আশ্বাস

নিউজ ডেক্স ঃ  স্পেনের বার্সেলোনায় স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করার জন্য সিটি কর্পোরেশন স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে আশ্বাস প্রদান করেছে। ১৭ জুলাই স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাব বার্সেলোনা সিটি কর্পোরেশনের নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে এ উপলক্ষে মতবিনিময় সভা করেছে।

সভায় সিটি কাউন্সিলর নাতালিয়া মারটিনেস রোদ্রিগেজ ও কাউন্সিলর জরদি রাবাসসাসহ সিটি কর্পোরেশনের অন্যান্য নেতারা এবং স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আফাজ জনি, সাংগঠনিক সম্পাদক লোকমান হোসেন ও সভার সমন্বয়ক কামরুল মোহাম্মদসহ অন্যান্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।
সভায় সিটি কর্পোরেশনকে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য আনুষ্ঠানিক আবেদনপত্র পেশ করা হয়। গত দুই সপ্তাহ ধরে মহান একুশ ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের ইতিহাসে বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ সংশ্লিষ্টতা এবং বাংলাদেশে একুশ উদযাপনের জন্য শহীদ মিনারের গুরুত্ব বোঝানোর জন্য সমন্বয়ক কামরুল মোহাম্মদ ও স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাব বিভিন্ন নথিপত্র ও তথ্য উপাত্ত প্রস্তুত করেন।

এর মধ্যে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ ছিল প্রবাসী সাংবাদিক মিরন নাজমুলের তৈরি করা বিশেষ ভিডিও চিত্র। ভিডিও চিত্রে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও প্রভাত ফেরী অনুষ্ঠানে প্রস্তুতিসহ একুশ সংক্রান্ত বিষয়ের সঙ্গে নেপথ্যে ছিল স্প্যানিশ ভাষায় গাওয়া ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি’ গানটির প্রথম অন্তরা।

স্প্যানিশ ভাষায় একুশের গান শুনে সিটি কর্পোরেশনে কর্মকর্তারা একুশ সংক্রান্ত পুরো প্রেজেন্টেশনের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবকে ধন্যবাদ জানান।

পরে উপস্থিত সিটি কর্পোরেশনের কর্মকর্তারা আশ্বাস দেন, শহরের সিউতাদ ভেইয়াতে সিটি কর্পোরেশন স্মৃতি সৌধ নির্মাণের জন্য পুনরায় অনুমতি দিলে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারের ভিত্তিতে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে। বার্সেলোনায় বাংলাদেশি কমিউনিটির ‘প্রাণের দাবি’ একটি স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণের জন্য গত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশি কমিউনিটি বিভিন্নভাবে দাবি করে আসছিল।

কিন্তু বার্সেলোনা শহরের বাংলাদেশি অধ্যুষিত এই এলাকা সিউদাদ ভেইয়াতে আপাততঃ কোনো ধরনের সৌধ নির্মাণের অনুমতি না থাকায় এতদিন শহীদ মিনার প্রশ্নে সিটি কর্পোরেশন বিশেষ ইতিবাচক আশ্বাস দেয়নি। দাবির প্রেক্ষিতে শুধু প্লাসা পেদ্রোতে গত ২১ ফেব্রুয়ারির আগে একটি একুশের শহীদ মিনারের ছবি ও বাংলা লেখা সম্বলিত একটি স্থায়ী প্লাকা (সিল্ড) স্থাপন করে।

কর্মকর্তারা আরও জানান, সিউতাদ ভেইয়াতে ভবিষ্যতে কোনো প্রকার সৌধ নির্মাণের অনুমতি যদি নাও আসে তাহলে সিউতাদ ভেইয়ার বাইরে হলেও মহান ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষার সম্মানে স্থায়ী শহীদ মিনার নির্মাণ করা হবে।

সিটি কর্পোরেশনের এই ঘোষণার মাধ্যমে বাংলাদেশি কমিউনিটি একান্ত দাবি এই স্থায়ী শহীদ মিনার বাস্তবায়িত হবার ক্ষেত্রে হতাশার মধ্যে আশার আলো সঞ্চারিত হলো বলে মনে করছেন বার্সেলোনায় বসবাসকারী বাংলাদেশিরা।

কানেকটিকাটে লায়ন্স ক্লাবের প্রথম পথমেলায় প্রবাসীদের ভিড়

নিউজ ডেক্সঃ যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাটের ম্যানচেস্টারে ওয়ালিংফোর্ড বেঙ্গল সেন্টেনিয়াল (শতবার্ষিক) লায়ন্স ক্লাবের আয়োজনে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত পথমেলায় প্রবাসীদের ব্যাপক সাড়া মিলেছে।

শনিবার ম্যানচেস্টারের সেন্ট্রাল মেমোরিয়াল পার্কে অনুষ্ঠিত এ মেলায় স্থানীয় প্রবাসীদের ঢল নামে। মেলায় ছিল দেশীয় খাবার, কাপড় ও গহনার দোকানসহ হরেক রকমের জিনিসের বেচাকেনা। বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলে এ অনুষ্ঠান।


মোহাম্মদ রহমান তুহিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন কানেকটিকাটের স্টেট সিনেটর সাইদ আনোয়ার, ইউএস রিপ্রেজেন্টিটিভ জন লারসন, কানেকটিকাটের লে. গভর্নর সুজান বাইসিউইজ, অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম টং, ডেমোক্রেটিক পার্টির সাবেক চেয়ারউমেন ন্যান্সি ডিনারডো, ডেমোক্রেটিক পার্টির চেয়ার ন্যান্সি ওয়াইম্যান, স্টেট ট্রেজারার শান উডোন, ম্যানচেস্টার মেয়র জে মোরান, বাংলাদেশি ডেমোক্রেটিক নেতা মেলার আহ্বায়ক মোহাম্মদ রহমান অপু, ডা. শওকত খান ও বাক সভাপতি ময়নুল হক চৌধুরী হেলাল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে স্থানীয় কলেজগামী বেশ কিছু শিক্ষার্থীদের হাতে এককালীন উপহার অর্থসহ সনদপত্র তুলে দেন লায়ন্স ক্লাবের কর্মকর্তারা। সনদপ্রাপ্তরা হলেন নাফিস হালিম, জেসিকা দত্ত, শ্রুতি ক্রুজ, প্রান্তি গমেজ, মার্ক রোজারিও, উইলিয়াম গমেজ, ক্রিস্টাল অধিকারী, আব্দুল্লাহ আল মুবীন, মেসকাথ উল্লাহ, ইফতার ইজাজ, মেহজাবীন রহমান ও পেরসা শেহরীন।

বাক পরিচালিত বাংলা স্কুলের শিক্ষিকাদের হাতে তুলে দেয়া হয় সনদপত্র। তারা হলেন সাফিনা রহমান, লুৎফা জিলু, শাজেদা চৌধুরী, কামরুন্নেহার চৌধুরী, হাজেরা আক্তার ও সুফিয়া আম্বিয়া।

এছাড়াও বাক বাংলা স্কুলের ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের হাতে এককালীন উপহার অর্থসহ সনদপত্র তুলে দেয়া হয়। সনদপ্রাপ্তরা হলেন আয়েশা, সাদিয়া, আফরিন, তাজিন, নওরিন, জারা, তায়েবা, আনিসা, রাহিন, বিপাশা, মাহদি, সারিকা, আয়হাম, ফিহা, রিফাত, পাপিয়া, নাবিলা ও তাহমিদ।

কানেকটিকাটের মূলধারার রাজনীতিবিদদের তাদের স্ব স্ব কাজে অবদানের জন্য বিশেষ সম্মাননা প্রদান করেন ওয়ালিংফোর্ড বেঙ্গল সেন্টেনিয়াল (শতবার্ষিক) লায়ন্স ক্লাবের কর্মকর্তারা। তারা হলেন কানেকটিকাটের স্টেট সিনেটর সাইদ আনোয়ার, ইউএস রিপ্রেজেন্টিটিভ জন লারসন, কানেকটিকাটের লে. গভর্নর সুজান বাইসিউইজ, অ্যাটর্নি জেনারেল উইলিয়াম টং, ডেমোক্রেটিক পার্টির সাবেক চেয়ারউমেন ন্যান্সি ডিনারডো, ডেমোক্রেটিক পার্টির চেয়ার ন্যান্সি ওয়াইম্যান, স্টেট ট্রেজারার শান উডোন ও ম্যানচেস্টার মেয়র জে মোরান।

নিউইয়র্কের জনপ্রিয় উপস্থাপিকা শামসুন্নাহার নিম্মির সঞ্চালনায় পথমেলায় সঙ্গীত পরিবেশন করেন দেশের জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী এসআই টুটুল, লস আঞ্জেলেস প্রবাসী সোনিয়া, নিউইয়র্কের রানো নেওয়াজ ও স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ। শিল্পীদের যন্ত্রসঙ্গীতে সঙ্গত করেন নিউইয়র্কের সারগাম ব্যান্ড

জীবন যুদ্ধে হার না মানা সৈনিকের গল্প

নিউজ ডেক্সঃ একজন সাধারণ মানুষের অসাধারণ হয়ে ওঠার পেছনে একটি গল্প থাকে। এটি তেমনি একটা গল্প। অথবা তারও কিছু বেশি। এই গল্প রূপকথাকে হার মানানো এক অপ্রতিরোধ্য কিশোরের জীবনযুদ্ধে জয়ী হবার গল্প। গ্রামের হিমেল বাতাস গায়ে মেখে আনন্দ-উচ্ছ্বাসে বেড়ে ওঠা কিশোরের নাম আপেল আমিন কাওসার।তরুণ উদ্যোক্তাদের জন্য তিনি এক বড় প্রেরণার উৎস। এদেশে যারা এক হাতে, নিজের যোগ্যতাতেই এতদূরে এসেছেন, তাদের অন্যতম হলেন আপেল আমিন কাওসার।ইউরোপের মাল্টাতে প্রায় ১১ বছর আগে পাড়ি জমান জীবন যুদ্ধে হার না মানা এই সৈনিক। আপেল আমিন কাওসারের দেশের বাড়ি পটুয়াখালী। পটুয়াখালীতে বেড়ে ওঠেছেন আপেল আমিন কাওসার। জীবন খুবই আশ্চর্য ঘটনার সম্মুখীন করে দেয় মানুষকে।

মানুষ তার নিজ ভাগ্য বদলের আসায় কত কিছুই না করছে। কেউ চাকরি, কেউ ব্যবসা, আবার কেউ পরিবার পরিজন ছেড়ে দূর প্রবাস। দিন থেকে রাত, রাত থেকে দিন এভাবেই পরিশ্রম করে যাচ্ছে প্রতিটা মানুষ। এত পরিশ্রমের পরেও কি সবাই সফল হতে পারে? সবশেষে দেখা যায় গুটিকয়েক সফল মুখ। গুটিকয়েক সফল মানুষদের মধ্যে অন্যতম আপেল আমিন কাওসার।

২০১২ সালে সুরুচি ইন্ডিয়ান রেস্টুরেন্ট দিয়েই তার প্রথম ব্যবসা শুরু করেন। এ ব্যবসায় তার ভাগ্য বদল করে দেয়। যা ২০১৫/২০১৭/, ২০১৮/২০১৯ সালের মধ্যে মাল্টা পুরস্কার পেয়েছেন মাল্টা সরকারি সংগঠন থেকে। বাংলাদেশসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশের মানুষের কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়তা রয়েছে এই রেস্টুরেন্টের।

মাল্টাতে ভালোই নাম ডাক রেস্টুরেন্টটির। ব্যবসার পাশাপাশি সামাজিক কার্যক্রমের সঙ্গেও জড়িত। অনেক ইচ্ছা দেশের জন্য ও দেশের মানুষের জন্য কিছু করার। তিনি মাল্টাতে বাংলাদেশি একটা কমিউনিটি প্রতিষ্ঠা করেন ২০১৭ সালে। কমিউনিটি প্রতিষ্ঠা করার প্রধান উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশিদের জন্য কাজ করা। মাল্টাতে আওয়ামী লীগের কমিটি গঠনেও তার অনেক অবদান রয়েছে।

তিনি মাল্টা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে আছেন। মাল্টাতে বাংলাদেশিদের সেবামূলক কাজে সবসময় তিনি নিজেকে নিয়োজিত রাখেন। মাল্টা তথা বাংলাদেশেও বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রম এ অংশগ্রহণ করেন এবং তিনি সর্বদা ব্যবসার পাশাপাশি রাজনৈতিক ও সামাজিক কার্যক্রম চালিয়ে যেতে চান এটাই তার ইচ্ছা।

পটুয়াখালীর কৃতি সন্তান মাল্টা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আপেল আমিন কাওসার বলেন, ‘নিজস্ব অর্থে পদ্মার ওপর ৬ দশমিক ১ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতু নির্মাণ করার সাহস দেখাচ্ছে বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাংক অর্থায়ন থেকে সরে যাওয়ার পর বিশাল এ প্রকল্প হাতে নেয়ার ঘটনা অনেক দেশ ও সংস্থার সন্দেহ ও বিস্ময় প্রকাশ করলেও সে স্বপ্ন এখন দৃশ্যমান।’

‘এক লাখ ১৩ হাজার কোটি টাকা খরচ করে রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র স্থাপন করছে বাংলাদেশ। মেট্রোরেল, এলিভেটেট এক্সপ্রেসহ আরও কিছু বড় প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে সরকার। দেশের প্রথম ৬ লেনের ফ্লাইওভার নির্মাণ কাজ নির্ধারিত সময়ের আগেই সম্পন্ন হয়েছে।’

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধে জড়িতদের বিচার কাজে সফলতা অর্জন করেছে বাংলাদেশ। টানা তিন মেয়াদের ক্ষমতায় বিভিন্ন প্রভাবশালী দেশ ও গোষ্ঠীর চাপ সত্ত্বেও শীর্ষস্থানীয় অপরাধীদের বিচার শেষে রায় কার্যকর করা হয়েছে। এই বিচার করতে পারা স্বাধীন বাংলাদেশকে কলঙ্কমুক্ত করার ক্ষেত্রে বড় সাফল্য। প্রবাসীদের এক কাতারে নিয়ে আসার মাধ্যমে এবং দেশে সঠিকভাবে রেমিট্যান্স পাঠিয়ে বর্তমান সরকারের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় সামিল হতে চাই।

তিনি আরও বলেন, ‘দেশে কতটা উন্নয়ন হচ্ছে তা দেশের মানুষই জানে। প্রবাসীসহ দেশের সকল মানুষকে নিয়ে আমরা দেশের উন্নয়নের জন্য এক কাতারে দাঁড়াতে চাই

রোনালদো-নেইমারের সঙ্গে বিজ্ঞাপন চিত্রে বাংলাদেশি মঈন

নিউজ ডেক্স ঃ মঈন উদ্দিন আহমেদ বহুমাত্রিক প্রতিভার অধিকারী পর্তুগাল প্রবাসী একজন বাংলাদেশি। দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় নিয়ে রয়েছেন ইউরোপে। কিছু দিন ইংল্যান্ডে থাকার পরে চলে আসেন আটলান্টিক সাগর পাড়ের দেশ পর্তুগাল। শুরু থেকেই জড়িত ছিলেন পর্তুগালের মূল ধারার বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে।
সাম্প্রতিক সময়ে তিনি তারকা ফুটবলার ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো ও নেইমারের সঙ্গে পর্তুগালের অন্যতম বৃহৎ টেলিকম কোম্পানি মিও-এর একটি যৌথ বিজ্ঞাপন চিত্রে কাজ করেছেন।  গত ২২ জুন লিসবনের বিভিন্ন স্থানে বিজ্ঞাপন চিত্রটির দৃশ্য ধারণ করা হয় এবং বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর অফিসিয়াল ফেসবুক ওয়ালে এটি শেয়ার করা হয়। যা গত তিনদিনে প্রায় চার লাখ বারের মতো দেখা হয়েছে।
উল্লেখ, মঈদ আহমেদ পর্তুগাল ইমিগ্রেশন হাইকমিশনে কর্মরত একমাত্র ইন্দো-এশিয়ান বাংলাদেশি সহকারী অফিসার। তিনি বৃহত্তর কুমিল্লার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার সদর থানার পূর্বপাইক পাড়া গ্রামের মৃত মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন আব্দুস সাত্তারের ছেলে। সাত ভাই-বোনের মধ্যে তিনিই সর্বকনিষ্ঠ।


ছোট বেলা থেকেই থিয়েটারের প্রতি তার অনুরাগ ও ভালোবাসা ছিল। বাংলাদেশে উচ্চ মাধ্যমিক পড়া অবস্থায় কাজ করেছেন বিভিন্ন নাট্যদল ও মঞ্চে। মাধ্যমিক শেষে উচ্চশিক্ষার জন্য ইংল্যান্ডে পাড়ি জমান এবং লেখাপড়া শেষ করে পর্তুগালে বসবাস শুরু করেন। এখানে আসার পর থেকেই স্থানীয় থিয়েটার গ্রুপের সঙ্গে যুক্ত হন। স্থানীয় মঞ্চে অভিনয় করেছেন ইংল্যান্ডের বিখ্যাত নাট্যকার উইলিয়াম সেক্সপিয়রের জনপ্রিয় ট্র্যাজেডি ‘ম্যাকবেথ’সহ বেশ কিছু পর্তুগিজ নাটকে।

এ প্রসঙ্গ কথা হলে মঈন উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘আমি একজন একনিষ্ঠ অভিবাসন ও সমাজকর্মী কিন্তু সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রতিও আমার রয়েছে অন্যরকম ভালোবাসা। তাই যখন সময়-সুযোগ হয়, আমাদের সংস্কৃতি বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে চেষ্টা করি। আর আমি আশা করি, বিজ্ঞাপন চিত্রটি দর্শকদের ভালো লাগবে। বাংলাদেশি হিসেবে আমি গর্বিত যে, বিশ্ব ফুটবলের এমন জীবন্ততারকা কিংবদন্তিদের সঙ্গে কাজ করতে পেরেছি

নতুন কমিটির অপেক্ষায় ইতালি আওয়ামী লীগ

নিউজ ডেক্সঃ নতুন কমিটির অপেক্ষায় ইতালি আওয়ামী লীগ
মেয়াদোত্তীর্ণ সাত বছরের কমিটি ভেঙে নতুন আহ্বায়ক কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছেন ইতালি আওয়ামী লীগের নেতারা। সুষ্ঠু কাউন্সিল দিয়ে সাংগঠনিক নিয়মে দলকে পুনর্গঠনের আহ্বান জানানো হয় আলোচনা সভায়।


সম্প্রতি রোমের পিয়াচ্ছা ভিত্তোরিও ফুড অব রোমা রেস্টুরেন্টে স্থানীয় সময় রাত নয়টায় কাউন্সিলের দাবিতে এ আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ইতালি আওয়ামী লীগ সহ-সভাপতি হাজী জাহাঙ্গীর ফরাজীর সভাপতিত্বে ও সাংগঠনিক সম্পাদক মোক্তার জামানের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম মাঝি। যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এম এ রব মিন্টু।

এ সময় বক্তারা দলের সাত বছরের কর্মকাণ্ডের বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরে বলেন, ১শ ২১ জনের কার্যকরী কমিটির কোনো সভা ডাকা হলে ৬১ জনই অনুপস্থিত থাকেন। দলে সাংগঠনিক নিয়ম নেই বললেই চলে। সভাপতি বেশিরভাগ সময় দেশে থাকায় অনেকেই দলের পদ পদবির অপব্যবহার করে ফায়দা লুটছেন। ফলে দলের আদর্শ নৈতিকতা ভুলুণ্ঠিত হচ্ছে।

 

বক্তারা বলেন, ‘দীর্ঘ প্রায় সাত বছর কাউন্সিল না হওয়ায় কর্মীরা ঝিমিয়ে পড়েছেন। দলের বড় পদ ব্যবহার করে আয়ের উৎস তৈরি করার অভিযোগ রয়েছে।’
বক্তারা বলেন, কাউন্সিলহীন দল এভাবে চলতে পারে না। দলকে সুসংগঠিত করতে নেতা-কর্মীদের উজ্জীবিত রাখতে ইতালি লীগের কাউন্সিলের বিকল্প নেই। বক্তারা আরও বলেন, পুরাতন কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন আহ্বায়ক কমিটির মাধ্যমে কাউন্সিল দিতে হবে। চলতি একুশ তারিখ পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকব সভাপতির সম্মানার্থে, এরপর কোনো ছাড় দেয়া হবে না।

সভায় বক্তব্য দেন, সাংগঠনিক সম্পাদক সরদার লুৎফর রহমান, দীন মোহাম্মদ দীনু, প্রচার সম্পাদক মান্নান মাদবর, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক কবির হোসেন, সদস্য শেখ ইসহাক, ফারুক ফরাজী, মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রীনা কবির, রোম মহানগর সিনিয়র সহ-সভাপতি স্বপন হাওলাদার, যুগ্ম সম্পাদক হাজী সুইট, সাংগঠনিক সম্পাদক জি আর মানিক, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ফকরুল ইসলাম লিটন।

অন্যদের মধ্যে উস্থিত ছিলেন স্বপন দাস, রুহুল আমিন তালুকদার, লোকমান মাদবর, আবু হাসনাথ বাবু, সাইদুর রহমান ছৈয়াল, সাব্বির হোসেন, সুপর, আরিফ হোসেন, জাহাঙ্গীর, ইলিয়াছ, মল্লিক, মিন্টু হাওলাদার, স্বপন, বিল্লাল হোসেন, কামাল হোসেন, শফিকুর রহমান রনি, মামুন তালুকদার, নিজামুদ্দিন সুমন, বাকের হোসেন, সাইফুল ইসলাম, মোহাম্মদ আলী প্রমুখ

আমিরাতে আজমান আ.লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলন

নিউজ ডেস্কঃ আওয়ামী লীগ সরকারই দেশের মানুষকে উন্নত জীবন যাপনের সুযোগ করে দিতে পারে। সরকারের হাতকে আরও শক্তিশালী করতে প্রবাস আওয়ামী লীগকে সবসময় ঐক্যবদ্ধ করতে হবে। আমিরাতের আজমান আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে বক্তারা এমন বলেন।

সম্প্রতি আজমানের একটি রেস্তোরাঁয় এ উপলক্ষে আয়োজিত সভায় সভাপতিত্ব করেন জহির উদ্দিন। আব্দুল মুকিদের পরিচালনায় সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন আরব আমিরাত আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রকৌশলী মনোয়ার হোসেন।

বক্তব্য দেন আমিরাত আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী এস এম মহিউদ্দিন ইকবাল। এ ছাড়া উদ্বোধকের বক্তব্য দেন দুবাই আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি হাজী শফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ থেকে আগত মৌলভীবাজার জেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি ও কামারচাক ইউপি চেয়ারম্যান নাজমুল হক সেলিম।

জাতীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে কোরআন তেলাওয়াত করেন সুহেল আহম্মেদ। আরও বক্তব্য দেন শারজাহ আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আউয়াল, দুবাই আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মাশুক আহমদ রুমেল, আবুধাবি আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মুক্তিযোদ্ধা মনির হোসেন, হাবিবুল হক সভাপতি, আল আইন আওয়ামী লীগের সভাপতি লোকমান হোসেন আনু, শারজাহ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রুহেল আহমদ রুহেল, আজমান আওয়ামী লীগের অন্যতম নেতা সালাউদ্দিন মধুসহ বিভিন্ন প্রদেশ থেকে আগত আওয়ামী লীগের নেতারা।

স্বাগত বক্তব্য দেন মিছবাহ উদ্দিন মিছবাহ। আরও বক্তব্য দেন সুহেল আহমদ, রাসেল আহমদ, সৈয়দ মোহাম্মদ রাসেল, সোহরাব হোসেন। পরে সালাউদ্দিন মধুকে প্রধান উপদেষ্টা, জহির উদ্দিনকে সভাপতি, আব্দুল মুকিদকে সাধারণ সম্পাদক ও মিছবাহ উদ্দিনকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩ বছর মেয়াদি কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ধরণীকে বাঁচাতে কার্যকর পদক্ষেপ নিতে হবে

প্রবাস ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে জলবায়ু সপ্তাহ উপলক্ষে জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় করণীয় শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়েছে। রয়েল জিওগ্রাফিক্যাল সোসাইটি ও ইন্টারন্যালশনাল সেন্টার ফর ক্লাইমেট চেইঞ্জ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের (আইসিসিসিএডি) যৌথ উদ্যোগে এ সেমিনারে বাংলাদেশ ও যুক্তরাজ্যসহ বিভিন্ন দেশের পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা অংশ নেন।

‘ক্লাইমেট চেঞ্জ চ্যালেঞ্জ : লেসন ফ্রম বাংলাদেশ’ শীর্ষক এ সেমিনারে প্যানেলভুক্ত আলোচকদের মধ্যে ছিলেন যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই-কমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম, বাংলাদেশের জাতীয় সংসদের সদস্য ও পরিবেশবিষয়ক সংসদীয় কমিটির সভাপতি সাবের হোসেন চৌধুরী, আইসিসিসিএডির পরিচালক ড. সালেমুল হক এবং যুক্তরাজ্য সরকারের সাবেক প্রধান বিজ্ঞানবিষয়ক উপদেষ্টা প্রফেসর স্যার ডেবিট কিং।

রয়েল জিওগ্রাফিক্যাল সোসাইটির পরিচালক প্রফেসর জো স্মিথের সভাপতিত্বে পরিবেশবিদসহ বিভিন্ন পেশা ও শ্রেণির ৩০০ শতাধিক অংশগ্রহণকারী এ সেমিনারে উপস্থিত ছিলেন।

যুক্তরাজ্যে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই-কমিশনার সাইদা মুনা তাসনীম তার বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পরিবেশ সুরক্ষায় শুধু বাংলাদেশেই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন ফোরামে অগ্রণী ভূমিকা পালন করে চলেছেন। এ ক্ষেত্রে তার অসামান্য অবদানের জন্য তাকে জাতিসংঘের পরিবেশবিষয়ক সম্মাননা ‘চ্যাম্পিয়ন অব দ্যা আর্থ’ পুরস্কারে ভূষিত করা হয়েছে।

সেমিনারে বক্তারা তাদের বক্তব্যে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের নেতিবাচক প্রভাব মোকাবিলায় এখনই সবাইকে এক সঙ্গে কাজ করতে হবে। তারা বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশের মতো হুমকির মুখে থাকা দেশগুলোসহ এ ধরণীকে বাঁচাতে কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

এর আগে ইন্টারন্যাশনাল সেন্টার ফর ক্লাইমেট চেঞ্জ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্টের ডিরেক্টর ড. সালিমুল হক ও রয়েল জিওগ্রাফিকাল সোসাইটির ডিরেক্টর প্রফেসর জো স্মিথের সঞ্চালনায় একাডেমিক ও রিসার্চারদের এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভার প্রতিপাদ্য বিষয় ছিল ‘কলোবোরেটিভ রিসার্চ অন ক্লাইমেট চেঞ্জ বিটুইন দি ইউকে অ্যান্ড বাংলাদেশ’। এ সভায় উপস্থিত ছিলেন প্রফেসর ডেভিড লুইস, প্রফেসর লুইসে ব্রকেন, প্রফেসর পল স্টিল, প্রফেসর নেইল আডগের, প্রফেসর সাইফুল ইসলাম, ড. মনোজ রয়, ড. ফয়সাল রহমান, এসেক্স ইউনিভার্সিটির শিক্ষক আদনান পাভেল, নাজনীন নাসীর, মালিহা মোজ্জামিল, রেজওয়ান সিদ্দিকী, সাদিক হকসহ আরও অনেকেই।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশির গলাকাটা লাশ উদ্ধার

নিউজ ডেস্কঃ মালয়েশিয়ায় প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে এক বাংলাদেশির গলাকাটা লাশ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। মালয়েশিয়ার কেলান্তানের গুয়া মুসাং শহরের ৬০ কিলোমিটার দূরে এ লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত ওই বাংলাদেশির নাম মো. মোমরাগ খাঁন (৩৯) বলে জানা গেছে। তবে তার বিস্তারিত ঠিকানা এখনো জানা যায়নি।

কেলান্তান পুলিশ প্রধান মোহাম্মদ তাওফীক মাইডিনের বরাত দিয়ে স্থানীয় মালয় পত্রিকা দৈনিক কসমোর খবরে বলা হয়, সোমবার জালান গুয়া মুসাং লোজিংয়ের প্রধান সড়কের পাশে একটি গাড়ির মধ্যে রক্তাক্ত অবস্থায় লাশটিকে গাড়ির সিটে বসা অবস্থায় দেখা যায়। দুপুর সোয়া একটার দিকে স্থানীয় লোকজন পুলিশে খবর দিলে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে গাড়ির মধ্য থেকে ওই বাংলাদেশিকে উদ্ধার করে। পরে তাকে গুয়া মুসাং হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ঘোষণা করেন।

পুলিশ জানায়, লাশটি উদ্ধারের সময় গাড়ির ভেতর থেকে একটি ২৩ সেন্টিমিটারের ছুরি উদ্ধার করা হয়। বর্তমানে বিষয়টি তদন্তাধীন।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে গুয়া মুসাং হাসপাতালে রয়েছে।

নিউইয়র্কে বাংলাদেশি হত্যাকারীর ১৫ বছরের কারাদণ্ড

নিউইয়র্ক প্রতিনিধি: বাড়িভাড়ার বকেয়া টাকা আদায় করতে গিয়ে বাংলাদেশি ভাড়াটিয়াকে খুনের দায়ে তাহার মাহরানকে ১৫ বছর কারদণ্ড দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের একটি আদালত। গত বৃহস্পতিবার ব্রঙ্কসের সুপ্রিম কোর্টের বিজ্ঞ আদালত এ রায় ঘোষণা করেন। দণ্ডিত ব্যক্তিকে ১০ বছর কারাগারে এবং ৫ বছর প্রবেশনে থাকবে হবে বলে রায়ে উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রবেশন বলতে কোনো অপরাধীকে তার প্রাপ্য শাস্তি স্থগিত রেখে, কারাবদ্ধ না রেখে বা কোন প্রতিষ্ঠানে আবদ্ধ না করে সমাজে খাপ খাইয়ে চলার সুযোগ প্রদান করাকে বোঝায়।

কোর্টের রায়ে জাকির খানের পরিবারসহ কমিউনিটির অনেকেই পুরোপুরি খুশি হতে পারেননি। তারা আশা করেছিলেন খুনি মাহরানের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হবে।

২০১৭ সালের ২২ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় ব্রঙ্কসে বাড়ির মালিক মিসরীয় বংশোদ্ভূত তাহার মাহরানের (৫১) উপর্যুপরি ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন বাংলাদেশি জাকির খান (৪৪)। পরে তাকে স্থানীয় জ্যাকোবি হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। ঘটনার দিনই মাহরান পুলিশে খবর দিয়ে স্বেচ্ছায় ধরা দিয়ে নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করেন। পুলিশে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে সেকেন্ড ডিগ্রি মার্ডারে অভিযুক্ত করেন।

২০১৭ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি জাকিরের মরদেহ সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জে তার গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয় এবং সেখানে দ্বিতীয় দফা জানাজা শেষে মা-বাবার কবরের পাশেই তার মরদেহ দাফন করা হয়।

নিহত জাকির খান ঢাকার নটরডেম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে ১৯৯২ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস শুরু করেন। জাকির খান নিউইয়র্কে পড়াশোনা শেষ করে রিয়েল এস্টেট ব্যবসার সঙ্গে জড়িত হন। তিনি ব্রঙ্কসে শীর্ষ স্থানীয় রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী হিসেবে কমিউনিটিতে পরিচিত লাভ করেন। নিউইয়র্কের ডেইলি নিউজ পত্রিকায় তাকে নিয়ে বিশেষ প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়। পত্রিকাটি তাকে ‘কিং অব রিয়েল এস্টেট অব ব্রঙ্কস’ নামে অভিহিত করে। জাকির খান মূলধারার পাশাপাশি কমিউনিটির নানা সামাজিক কর্মকাণ্ডে সক্রিয় ভূমিকা পালন করতেন। নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্যের রাজধানী আলবেনিতে অনুষ্ঠিত ‘বাংলাদেশ ডে’ পালনের অন্যতম উদ্যোক্তাও ছিলেন তিনি।

জাকির খানের এক মেয়ে ও দুই ছেলে রয়েছে। তারা স্কুলপড়ুয়া।

কুয়েতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত

কুয়েত প্রতিনিধিঃ যথাযোগ্য ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যে কুয়েতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হয়েছে। মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৫টায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়। দেশ থেকে হাজার হাজার মাইল দূরে পরিবার প্রিয়জন ছেড়ে প্রবাসী বন্ধুবান্ধব ও পরিচিতজনদের সঙ্গে ঈদ জামাত শেষে প্রবাসী বাংলাদেশিরা একে অন্যরে সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।

সকাল সাড়ে ৯টায় কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশি রাষ্ট্রদূত এস এম আবুল কালাম তার সরকারি বাস ভবনে প্রবাসী বাংলাদেশিদের সঙ্গে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় ও প্রীতিভোজের আয়োজন করেন। কুয়েতে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রবাসী, বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠনের নেতারা একে একে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এ সময় দুতাবাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। কুয়েতে বড় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছ গ্রান্ড মকস অব কুয়েত মসজিদে। এ ছাড়াও দেশটির বাঙালি অধ্যুষিত এলাকার ১৮টি মসজিদে সাপ্তাহিক জুমা ও দুই ঈদের জামায়াতে বাংলা খুতবা পড়ার অনুমোদন দিয়েছে কুয়েতের ধর্ম মন্ত্রণালয়।

সাপ্তাহিক জুমা ও ঈদের নামাজ বাংলা খুতবা পাঠ করেন বাংলাদেশি খতিবরা। প্রবাসী বাংলাদেশি মুসল্লিরা বিদেশের মাটিতে নিজের মাতৃভাষা বাংলায় খুতবা শুনার সুযোগ পেয়ে কুয়েত সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। প্রায় ৩ লাখ প্রবাসী বাংলাদেশি বিভিন্ন পেশায় কর্মরত আছেন দেশটিতে।

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী বাংলাদেশিদের পরিচয় মিলেছে

নিউজ ডেস্কঃ সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত প্রবাসী বাংলাদেশিদের পরিচয় মিলেছে। দেশটির সাগরা এলাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ১০ বাংলাদেশি নিহত হন। গুরুতর আহত হন আরও চারজন। বুধবার (১ মে) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন-

১. বাহাদুর, পিতা- হাবেজ উদ্দিন। মাতা- মালেকা। ঝাগরমান কালিহাতি, টাঙ্গাইল। পাসপোর্ট নম্বর- BW 0337299

২. মো. রফিকুল ইসলাম, পিতা- মো. আনোয়ার হোসেন। মাতা- মোছা. হিরা খাতুন। মাধবপুর বাহাদুরপুর, ভেড়ামাড়া, কুষ্টিয়া। পাসপোর্ট নম্বর- BW0798074

৩. মো. ইউনুস আলি, পিতা- মো. আব্দুল খালেক, মাতা- মোছা. আমেনা খাতুন। রঘুনাথপুর আলিপুর, ফুলবাড়িয়া, ময়মনসিংহ। পাসপোর্ট নম্বর BY 0525493

৪. মো. জামাল উদ্দিন মাঝি, পিতা- মান্নান মাঝি, মাতা- নুরজাহান। তারাকান্দি মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: BN 0571736

৫. মো. গিয়াসউদ্দিন মৃধা, পিতা- মো. তফিজউদ্দিন মৃধা। মাতা- মোছা. হামিদা। তেগরা মান্দা, নওগাঁ। পাসপোর্ট নম্বর: BL 0177817

৬. মো. জুয়েল, পিতা- মো. গিয়াসউদ্দিন মাতা- আমেনা খাতুন। বাহাদিয়া পাকুন্দিয়া, কিশোরগঞ্জ। পাসপোর্ট নম্বর: BE 0245406

৭. মো. ইমদাদুল, পিতা- রশিদ, মাতা- মোছা. কাজলি বেগম। তাতারদি শেখেরগাঁ মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: BX 0400348

৮. মো. মানিক, পিতা- মো. রমজান আলী, মাতা- মোছা. মানিকজান। তুরুকবাড়িয়া মান্দা, নওগাঁ। পাসপোর্ট নম্বর: BX 0505953

৯. মো. আল আমিন, পিতা- আব্দুল মান্নান শেখ মাতা- পদেনা বেগম। দমনমারা খিদিরপুর মনোহরদি, নরসিংদী। পাসপোর্ট নম্বর: BP 0049523

১০. মো. মনির, হোসেন পিতা- মো. শামসুল হক মাতা- মমতাজ বেগম। কস্তুরিপাড়া কালিহাতি, টাঙ্গাইল। পাসপোর্ট নম্বর: BX 0564818

দেশটির রাজধানী রিয়াদ থেকে ১০০ কিলোমিটার দূরের শহর সাগরায় যাওয়ার সময় এই দুর্ঘটনা ঘটে।

সাগরা প্রবেশপথে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাড়িটি দুর্ঘটনাকবলিত হয়। চালকসহ মোট ১৭ জন ছিলেন বলে জানা গেছে।

দুর্ঘটনায় আহত নাজমুল নামের এক বাংলাদেশি জানান, আমরা দু’জন সুস্থ আছি। তিনজনের অবস্থা একটু খারাপ। ১০ মারা গেছে।

মাইক্রোবাসে ১৭ জন ছিলেন। ঘটনার আগের দিন (৩০ এপ্রিল) রাতে দাম্মাম থেকে মদিনার দিকে যাচ্ছিলেন তারা।

পরদিন সকাল সাড়ে ৭টায় হঠাৎ গাড়ির চাকা বার্স্ট হয়। গাড়িটা ডিগবাজি খেয়ে পড়ে যায়। এতেই হতাহতের ঘটনা ঘটে।

ধর্ম অবমাননায় সেফুদার বিরুদ্ধে নেয়া হচ্ছে আইনি ব্যবস্থা

নিউজ ডেস্কঃ ইসলাম ধর্ম এবং মুসলামানদের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন শরিফ অবমাননাকারী সেফায়েত উল্লাহর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে ভিয়েনাস্থ মুসলিম কমিউনিটির নেতারা। শুক্রবার জুমার নামাজের পর এ বিষয়ে আলোচনা হয়।

ভিয়েনাস্থ বায়তুল মোকারম জামে মসজিদের সভাপতি আবিদ হোসেন খান তপন জাগো নিউজকে জানান, সেফায়েত উল্লাহ মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়েছে; যা সবার কাছে ঘৃণিত এবং নিন্দনীয়। সে জন্য জুমার নামাজের পর আলোচনায় এ সিদ্ধান্ত হয় যে প্রত্যেক মসজিদ থেকে দু’জন সদস্যকে নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হবে। সে কমিটি ভিয়েনাস্থ ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক সেন্টারের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সমন্বয় করে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করবে; যাতে ভবিষ্যতে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে তিনি বিরত থাকেন।

আবিদ হোসেন খান তপন জানান, কোনো ধরনের আক্রমনাত্বক প্রন্থা গ্রহণ না করে আইনি প্রক্রিয়ার যাওয়াটাই শ্রেয়। সবাইকে শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, শিগগিরই সেফায়েত উল্লাহর অস্ট্রিয়ার প্রচলিত আইনে বিচার হবে এবং সর্বোচ্চ শাস্তি হবে।

গত বুধবার (১৭ এপ্রিল) ফেসবুক লাইভে এসে ইসলাম ধর্ম এবং নবী মুহাম্মদকে (স.) নিয়ে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেন সেফাত উল্লাহ, যিনি সেফুদা নামেই সোশাল মিডিয়াতে বেশি পরিচিত। বিতর্কিত ভিডিও ব্লগার সেফাত উল্লাহ মুসলমানদের পবিত্র গ্রন্থ কোরআন শরিফকে বাজেভাবে অবমাননা করেন যা ভিয়েনাস্থ মুসলামান ছাড়াও সারা বিশ্বের মুসলমানদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানে। বিভিন্ন দেশের মুসলমানরা সেফায়েত উল্লাহের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। এ ছাড়া সেফায়েত উল্লাহকে বাংলাদেশে এনে ফাঁসির দাবি জানান অনেকেই।

শাহআলম এলাকায় ১১ বাংলাদেশিসহ ৩৭ জনকে গ্রেফতার

প্রবাসেঃ মালয়েশিয়ার শাহআলম এলাকার কয়েকটি স্থানে অভিবাসন বিভাগের অভিযানে ১১ বাংলাদেশিসহ ৩৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সেলাংগর ইমিগ্ৰেশনের প্রধান মো. সুকরি নাউয়ির নেতৃত্বে শাহআলম ও কেলাং এলাকার কয়েকটি মুদি দোকান, রেস্টুরেন্ট, ডিস্কোসহ বিদেশি শ্রমিকদের বাসস্থানে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন দেশের ৬৮ জনকে আটক করা হয়।

আটককৃতদের মধ্যে যাচাই-বাছাই শেষে ৩৭ জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়। এর মধ্যে ১১ বাংলাদেশিসহ ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম ও ভারতে নাগরিক রয়েছেন। তাদেরকে ইমিগ্রেশন আইনের ৬(১)(ছি) ১৯৫৯/৬৩ এবং ১৫(১)(ছি) ধারায় গ্রেফতার দেখানো হয়।

আমিরাতে সরকারি-বেসরকারি খাতে সমানসংখ্যক ছুটি ঘোষণা

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ সরকারি এবং বেসরকারি খাতে সমানসংখ্যক ছুটি দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির মন্ত্রিসভার নেয়া এ সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সরকারি-বেসরকারি চাকরিজীবী আমিরাতিদের পাশাপাশি এই ছুটি উপভোগ করতে পারবেন প্রবাসীরাও।

আমিরাতের সংবাদ সংস্থা এমিরেটস নিউজ অ্যাজেন্সি (ওয়াম) বলছে, মন্ত্রিসভা আগামী ২০২০ সাল পর্যন্ত সরকারি খাতের ছুটির অনুমোদন দিয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, সমানসংখ্যক ছুটি বেসরকারি খাতের কর্মজীবীরাও পাবেন। দেশটির অর্থনীতির চাকা সচল এবং সরকারি-বেসরকারি খাতে ভারসাম্য আনার লক্ষ্যে এই ডিক্রি জারি করা হয়েছে।

দেশটির সরকারি এই সিদ্ধান্তের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন অনেকে। তারা বলেছেন, আমিরাতের ‘সহনশীলতার বছর ২০১৯’ থিমের সঙ্গে এই সিদ্ধান্ত যুতসই।

আমিরাতের বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে সিনিয়র হিউম্যান রিসোর্স ম্যানেজার হিসেবে কর্মরত আছেন ফরাসী নাগরিক সারাহ সালাতনিয়া। তিনি বলেন, এটা এমন একটি চমকপ্রদ সংবাদ; যা আমাদের মনে করিয়ে দেয় যে, এই দেশের সরকার বাসিন্দাদের জন্য কতটা যত্নশীল এবং নাগরিকদের মতো প্রবাসীদেরও একই ধরনের সুযোগ-সুবিধা দেয়।

সারাহ বলেন, একটি ভাল সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরব আমিরাত সরকার। সহনশীলতার বছরের সঙ্গে সময়োচিত এই সিদ্ধান্ত দেশটির সব কোম্পানি ও সকল জনগণের মাঝে আনন্দ-উল্লাস ছড়িয়ে দিয়েছে।

ভারতীয় প্রবাসী ফাহাদ সিদ্দিকী আমিরাতে বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে সেলস ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন। তিনি বলেন, এটা এমন একটি সংবাদ যে, পরিবার-সহ ঘুরতে গিয়ে উদযাপন করবেন। সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে এখন তিনি পরিবারকে বেশি সময় দিতে পারবেন।

‘এই দেশটি কখনই আমাদের হতাশ করে না। এমন অনেক মজাদার চমক দেয় আমাদের, যা দেশটিকে আরো বেশি বেশি ভালবাসতে বাধ্য করে। আমাদের ছুটি বেশি দেয়ার অর্থ হলো, আমাদের শরীর এবং পরিবারকে বেশি সময় দেয়ার সুযোগ দিচ্ছে।’

আবুধাবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাক্ষাৎ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে

ক্রাইম পেট্রোল বিডি ডেস্কঃ সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবি বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব ইফতেখার হোসাইন বাবুলের নেতৃত্বে মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারি) গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছেন।

এ সময় বঙ্গবন্ধু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটি আবুধাবি, মধ্যপ্রাচ্য প্রবাসীর পক্ষ থেকে শেখ হাসিনাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়ে পরিষদের সদ্য প্রকাশিত ম্যাগাজিন ‘তুর্য’ হস্তান্তর করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সেতুমন্ত্রী ওবাইদুল কাদের এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমপি, তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইয়েদ আহমেদ পলক ও আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরী।

এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন সাবেক সামরিক গোয়েন্দা সংস্থার (ডিজিএফআই) প্রধান লেঃ জেনারেল মোল্লা ফজলে আকবর (পিএইচডি) আবুধাবি বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন তালুকদার, যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন এবং সাংগঠনিক সম্পাদক মোহাম্মদ জমির হোসেন ও কোষাধক্ষ্য আবু তাহের তারেক।

প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আগামী ১৭/০২/২০১৯ সংযুক্ত আরব আমিরাত সফর করবে। এ ছাড়া প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা উল্লেখ্য করে সংগঠনের পক্ষ থেকে লিখিত দাবি প্রদান করা হয়।

শেখ হাসিনা প্রবাসীদের স্থানীয় আইন-কানুন মেনে চলে দেশে সুনাম বৃদ্ধি করে বৈধ চ্যানেলে রেমিট্যান্স প্রেরণের মাধ্যমে দেশের উন্নয়নের কাজ করার আহ্বান জানান।

ইতালিতে নিখোঁজ এক বাংলাদেশির খোঁজ মিলছে না

ইতালিঃ ইতালির বন্দর নগরী কাতানিয়ায় আলম জুবায়ের লিংকন (৩৩) নামে বাংলাদেশির খোঁজ মিলছে না। গত দুই মাস তাকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানা গেছে।

এ বিষয়ে কাতানিয়া প্রবাসী বাংলাদেশি আলমের বন্ধু আসলাম তালুকদার জানান, গত দুই মাস আগেও সে স্বাভাবিক জীবন-যাপন করতো। প্রায় তার সঙ্গে দেখা হত।

তিনি জানান, সুস্থ ও ভালো ছেলে। হঠাৎ তাকে খুঁজে না পাওয়া ব্যাপারটা একপ্রকার ভাবিয়ে তুলেছে কাতানিয়া বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতা-কর্মীদের। দু-বেলা কাজ করি তাই ব্যস্ত থাকতে হয়। সময়ের অভাবে থানায় গিয়ে জিডি করতে পারছি না। তবে শিগগিরই বাংলাদেশ দূতাবাস ও পুলিশকে অবহিত করা হবে।

নিখোঁজ লিংকন প্রায় সাত বছর ধরে ইতালিতে বসবাস করছেন। জীবিকার তাগিদে স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন। অর্থনৈতিক দিক থেকে পৈত্রিকভাবে স্বাবলম্বী। পারিবারিকভাবে কোনো চাপ নেই বলেও জানান তার বন্ধু আসলাম। নিখোঁজ যুবকের দেশের বাড়ি মুন্সীগঞ্জের লৌহজং থানায়।

বর্তমান তার পরিবার ঢাকার ধনিয়া থাকেন। বাবার নাম মো. নুরুজ্জামান, মাতা রেহানা বেগম। লিংকন পরিবারের বড় ছেলে তার ছোট বোন তমা ছোট ভাই আকাশ স্কুলে পড়ছে। সন্তানকে খুঁজে না পেয়ে পরিবার মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছে।

সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুতে ইইউ আওয়ামী লীগের শোক

প্রবাস ডেস্কঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন অল ইউরোপ আওয়ামী লীগের সভাপতি শ্রী অনিল দাশগুপ্ত ও সাধারণ সম্পাদক জনাব এম,এ,গনি।

এক যৌথ বিবৃতিতে তারা বলেন, সৈয়দ আশরাফের মৃত্যুতে একজন অমায়িক, অসাধারণ, নির্মোহ, নির্লোভ, দেশপ্রেমিক, সজ্জন, বঙ্গবন্ধু সৈনিক, বঙ্গবন্ধু কন্যার বিশ্বস্ত সহযোদ্ধা, বীর মুক্তিযোদ্ধাকে হারালো জাতি। এই শূন্যতা কখনও পূরণ হবে না।

বিবৃতিতে সম্মতি জানান, ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নজরুল ইসলাম, লোকমান হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুজিবর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া, ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, প্রবাসী কল্যাণ সম্পাদক এম হাসনাত মিয়া, মহিলা সম্পাদিকা হোসনে আরা, জার্মান আওয়ামী লীগের সভাপতি বশিরুল ইসলাম চৌধুরী সাবু, সাধারণ সম্পাদক শেখ বাদল আহমেদ, ইতালি আওয়ামী লীগের সভাপতি ইদ্রিস ফারাজী, সাধারণ সম্পাদক হাসান ইকবাল, ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম, সাধারণ সম্পাদক মহসিন উদ্দিন খান লিটন, বেলজিয়াম আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল হক, সাধারণ সম্পাদক চৌধুরী জাহাঙ্গীর রতন, ডেনমার্ক আওয়ামী লীগের সভাপতি ইকবাল হোসেন মিঠু, সুইডেন আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক ড. ফরহাদ আলী খান, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আলী রমজান, সাধারণ সম্পাদক মাইনুল ইসলাম, নরওয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি রুহুল আমিন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, হল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন তপন, সাধারণ সম্পাদক মুরাদ খান, সুইজারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক শ্যামল খান, অস্ট্রিয়া আওয়ামী লীগের সভাপতি হাফিজুর রহমান খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, পর্তুগাল আওয়ামী লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম জসিম, সাধারণ সম্পাদক শওকত ওসমান, গ্রিস আওয়ামী লীগের সভাপতি রাকিব মৃধা, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, স্পেন আওয়ামী লীগের সভাপতি আখতার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক রিজভী আলম, আয়ারল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি কিবরিয়া হায়দার ও সাধারণ সম্পাদক বেলাল হোসেন প্রমুখ। -প্রেস বিজ্ঞপ্তি

মালায়েশিয়াতে চৌগাছার হাসেম আলী ইন্তেকাল করেছেন

চৌগাছা (যশোর) প্রতিনিধি: যশোরের চৌগাছা উপজেলার হাসেম আলী মালায়েশিয়াতে ইন্তেকাল করেছেন ।বুধবার (২৬ ডিসেম্বর) মালায়েশিয়া সময় সকাল ৬ টায় মৃত্যুবরণ করেছেন । তিনি বাংলাদেশের যশোর জেলার চৌগাছা উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের রায়নগর-চারাবাড়ি গ্রামের এলাহী বক্সের পুত্র । এলাকার সূত্রে জানা যায়  যারা প্রবাসী হিসেবে মালায়েশিয়াতে আছেন তাদের বক্তব্য মতে নিহত হাসেম আলী  আর্ধ যুগ ধরে মালায়েশিয়াতে শ্রমিক হিসেবে কর্মরত ছিলেন । কিন্তু আজ বুধবার সকালে সিপাং শহরে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু বরণ করেছেন । তার পরিবার সুষ্ঠুভাবে হাসেম আলীর লাশ ফিরে পেতে চান ।

ফতুল্লায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে নিহত ১

জেলা প্রতিনিধি: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা বিসিক শিল্পনগরী এলাকায় শ্রমিক ও পুলিশের মধ্যে সংঘর্ষে বুবলি বেগম (৪৫) নামে এক নারী শ্রমিক নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২৫ জন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত বুবলি বেগম নওগাঁ জেলার পাঁচচাটিয়া এলাকার সেলিম মিয়ার স্ত্রী। তিনি এনআর গার্মেন্টসের ৭ তলার ৮ নম্বর লাইনের হেলপার হিসেবে কাজ করতেন।

শ্রমিকরা জানান, গত তিনদিন ধরে এনআর গার্মেন্টসের শ্রমিকরা মজুরি বৃদ্ধির দাবি জানিয়ে আসছিল। মালিকপক্ষ এতে অস্বীকৃতি জানালে বৃহস্পতিবার সকালে শ্রমিকরা বিক্ষোভ শুরু করেন। এ সময় শ্রমিকরা ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে গাড়ি ভাঙচুর শুরু করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। এতে শুরু হয় শ্রমিক-পুলিশের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া। থেমে থেমে চলতে থাকে সংঘর্ষ।

দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের সময় শিল্প পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার মেহেদীসহ অন্তত ২৫ জন সাধারণ শ্রমিক আহত হন। এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ শুরু করে। এ সময় পুরো এলাকা রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। সংঘর্ষে আহতদের নগরীর ৩০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতাল ও স্থানীয় হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

ফতুল্লা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ মুহাম্মদ মঞ্জুর কাদের বলেন, শ্রমিকদের নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য পুলিশ লাঠিচার্জ করলে শ্রমিকরা এলোপাতাড়ি দৌড়াতে থাকে। এ সময় ওই নারী শ্রমিক আহত হন। পরবর্তীতে তিনি মারা যান। পরিস্থিতি বর্তমানে শান্ত রয়েছে। ঘটনার পর বিসিক শিল্প নগরীতে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে তিনি জানান।