গ্রামকে শহরে রূপান্তর করার জন্য বাড়ি বাড়ি ইন্টারনেট পৌঁছাতে হবেঃ মোস্তাফা জব্বার

রেজাউর রহমান; ঢাকা : জেলা প্রশাসক সম্মেলন ২০১৯ এর চতুর্থ দিবসে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি  এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ বিষয়ক অধিবেশন আজ বাংলাদেশ সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষেঅনুষ্ঠিত হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব  মোহাম্মদ শফিউল আলম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান প্রধান অতিথি এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীজনাব মোস্তাফা জব্বার অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের সচিব অশোক কুমার বিশ^াস উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, জেলা প্রশাসকগণ হচ্ছেন তৃনমূল পর্যায়ে জনগণ ও সরকারের মধ্যে সেতুবন্ধন, সরকারের কর্মসূচিবাস্তবায়নের অন্যতম চালিকা শক্তি। মন্ত্রী তার মন্ত্রণালয়ের অগ্রগতির চিত্র তুলে ধরেন এবং চলমান অগ্রগতি এগিয়ে নিতে জেলা প্রশাসকগণ নিষ্ঠার সাথে অর্পিত দায়িত্বপালনে আরও বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখবেন বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে গৃহীত কর্মসূচি বাস্তবায়নে গ্রাম পর্যন্ত ডিজিটাল কানেকটিভিটি পৌছাতে হবে। এইক্ষেত্রে জেলা প্রশাসকদের অগ্রণি ভূমিকার প্রয়োজনীয়তার ওপর গুরুত্বারোপ করেন মন্ত্রী। তিনি বলেন,  দেশের প্রায় ৪০০০ ইউনিয়নে দ্রুত গতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটসংযোগ পৌছে গেছে। ২০২০ সালের মধ্যে অবশিষ্ট ৭৩৬টি ইউনিয়ন এবং দুর্গম চর,হাওর, দ্বীপ এবং অধুনালুপ্ত সিট মহলে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সংযোগ নিশ্চিত করাহবে। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদৃষ্টি সম্পন্ন কর্মসূচি গ্রামকে শহরে রূপান্তর করার জন্য বাড়ি বাড়ি ইন্টারনেট পৌছাতে হবে। এই ক্ষেত্রে বিদ্যমান চ্যালেঞ্জমোকাবেলায় জেলা প্রশাসকদের এগিয়ে আসতে হবে ।

জনাব মোস্তাফা জব্বার ডিজিটাল কানেকটিভিটিকে ডিজিটাল প্রযুক্তির মহাসড়ক উল্লেখ করে বলেন, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ ডিজিটাল মহাসড়ক নির্মাণ করছে।২০০৮ সালের আগের বাংলাদেশ আর আজকের বাংলাদেশের মধ্যে পার্থক্য অভাবনীয়। ২০০৮ সালে দেশে মাত্র ৮ জিবিপিএস ইন্টারনেট ব্যবহৃত হত যা বর্তমানে প্রায়১৩০০ জিবিপিএসে উন্নীত হয়েছে। ৪ কোটি ৮ লাখ মোবাইল ব্যবহারকারির বাংলাদেশ আজ ১৫ কোটি ৫০লাখে উন্নীত হয়েছে। পৃথিবীর অনেক দেশ এখন বাংলাদেশথেকে শিখছে কিভাবে দেশকে ডিজিটাল রূপান্তর করতে হয়। কিভাবে রূপান্তর ঘটাতে হয়। ডিজিটাল রূপান্তরে গত দশ বছরে বাংলাদেশ যা করেছে পৃথিবীর অনেক উন্নতদেশও তা পারেনি, উল্লেখ করেন মন্ত্রী। তিনি বলেন, সামনের দিনগুলো হবে আরও সমৃৃদ্ধির ও চ্যালেঞ্জের। এই ক্ষেত্রে চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সতর্ক থাকতে হবে।

আপনার মতামত জানানঃ