টঙ্গীতে যুবককে কুপিয়ে হত্যা; আটক-১

প্রকাশিতঃ ৭:৫৭ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৮ নভেম্বর ১৯

অমল ঘোষ, টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি : টঙ্গীতে মাদক ব্যবসার আধিপত্য বিস্তারের জেরে আল আমিন (৩৮) নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বত্তরা। গত বৃহস্পতিবার রাতে মোক্তার বাড়ি জামতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আল আমিন কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানার দৌলতপুর (উত্তর) গ্রামের মৃত সরু মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হাবিব নামের একজনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, আল আমিনের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে, খুন হওয়ার প্রকৃত কারন এখনও জানা যায়নি। তবে মোবাইল সক্রান্ত জেরে এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

এলাকাবাসি জানায়, রাত সাড়ে ৮টার দিকে ৪ থেকে ৫জন ছেলে হাতে ছুরি, রামদা নিয়ে দৌড়ে আল আমিনকে মোক্তার বাড়ি রোডের জামতলায় নিয়ে যায়। সেখানে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে গুরুতর আহত করে চলে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে হোসেন মার্কেট এলাকায় ঢাকা ইম্মেরিয়াল হাসপাতালে নিয়ে যায়। কর্তব্যরত চিকিৎসক হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

আরও জানা যায়, স্থানীয় মাদক ব্যবসায়ী হাবিব, সবুজ ও বেস্তি রনির বোনের জামাই মাসুদসহ আরও কয়েক জনের সাথে তার মাদক সংক্রান্তে বিরোধ ছিলো। এর জের ধরে আল আমিনের সাথে তাদের বেশ কয়েকবার ঝগড়া বিবাদ হয়েছিলো। উক্ত ঘটনায় তাকে হত্যা করতে পারে বলে ধারনা করছেন এলাকাবাসি।

তার পারিবাড়িক সুত্রে জানা যায়, আল আমিন মাদক সেবন ও কেনাবেচার মধ্যে জড়িত ছিল। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। কয়েক মাস পূর্বে স্বামী স্ত্রী দুইজনের মধ্যে ডিভোর্স হয়ে যায়। টঙ্গী পশ্চিম থানার ওসি মো. এমদাদুল হক জানান, এ ব্যপারে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আপনার মতামত জানানঃ