ফালু ও তার স্ত্রীর সম্পদের হিসাব চেয়েছে দুদক

প্রকাশিতঃ ৪:৩২ অপরাহ্ণ, বুধ, ৩১ আগস্ট ১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবৈধ সম্পদ অর্জন ও রাজস্ব ফাঁকিসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রাক্তন উপদেষ্টা মোসাদ্দেক আলী ফালু ও তার স্ত্রীর মাহবুবা সুলতানার সম্পদের হিসাব চেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

ফালুর বিরুদ্ধে ১৭৭ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ও তার স্ত্রী বিরুদ্ধে ৫ কোটি ১৪ লাখ টাকার অবৈধ সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক তথ্য-উপাত্ত পেয়েছে সংস্থাটি। আর এ কারণে তাদের সম্পদ বিবরণী দুদকে দাখিলের জন্য নোটিশ প্রদানের অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। দুদকের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

অভিযোগের বিষয়ে দুদক সূত্রে জানা যায়, মোসাদ্দেক আলী ফালু বিভিন্ন ব্যবসার নামে রাজস্ব ফাঁকির মাধ্যমে অবৈধভাবে শত কোটি টাকার সম্পদ অর্জন করেছেন বলে অভিযোগ পায় দুদক। এ ছাড়া তার বিরুদ্ধে শেয়ার মার্কেট হতে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ পায়।

চলতি বছরের ২৫ মে ফালু দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধানের অনুমোদন দেয় কমিশন। অভিযোগ অনুসন্ধানে দুদকের উপপরিচালক মো. জাহাঙ্গীর আলমকে অনুসন্ধান কর্মকর্তা এবং পরিচালক সৈয়দ ইকবাল হোসেনকে তদারককারী কর্মকর্তা নিয়োগ দেওয়া হয়। অনুসন্ধানী কর্মকর্তার প্রাথমিক অনুসন্ধানে ২০০৮-৯ অর্থ বছর থেকে ২০১৫-১৬ অর্থ বছর পর্যন্ত সময়ে মোসাদ্দেক আলী ফালু ১৭৭ কোটি ৩৬ লাখ ২ হাজার ৪১৯ টাকার সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে দুদক।

একই সময়ে তার স্ত্রী মাহবুবা সুলতানার ৫ কোটি ১৪ লাখ ২১ হাজার টাকা সম্পদ অর্জনের প্রাথমিক সত্যতা পেয়েছে দুদক। এ কারণে অনুসন্ধানী কর্মকর্তারা অনুসন্ধান সংক্রান্ত একটি অগ্রগতি প্রতিবেদন কমিশনে দাখিল করেন।

প্রতিবেদনে ফালু ও তার স্ত্রীর নামে থাকা সম্পদের তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরে তাদের নামে বিবরণীর নোটিশ ইস্যুর অনুমোদন প্রদানে কমিশনের অনুমতি প্রার্থনা করা হয়। প্রতিবেদন যাচাই-বাছাই শেষে সম্পদ বিবরণীর নোটিশ ইস্যুর অনুমোদন দিয়েছে কমিশন।

আপনার মতামত জানানঃ