বরগুনা পাসপোর্ট অফিসে দালালদের মাধ্যমে ঘুষ বানিজ্য চলছে

প্রকাশিতঃ ২:৩৩ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৪ অক্টোবর ১৯

মো.মিজানুর রহমান নাদিম,বরগুনা প্রতিনিধি : বরগুনা আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে দালালদের মাধ্যমে ঘুষ বানিজ্য চলছে।দালালদের  প্রশ্রয় দিচ্ছেন পাসপোর্ট অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারী। এতে করে গ্রামগঞ্জ থেকে আসা মানুষের ভোগান্তির শেষ নেই।গ্রামগঞ্জের থেকে আসা মানুষের কাছ থেকে অতিরিক্ত টাকা-লুটে নেয়।
জানা যায়, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী ব্যাংকের মাধ্যমে সাধারণ পাসপোর্টের জন্য তিন হাজার ৪৫০ টাকা এবং জরুরি পাসপোর্টের জন্য সাত হাজার টাকা জমা দিতে হয়। আবেদন করার পর ২১ দিন আর জরুরি ক্ষেত্রে ১১ দিনের মধ্যে পাসপোর্ট সরবরাহ করার নিয়ম রয়েছে। তবে, অধিকাংশ ক্ষেত্রেই নির্ধারিত সময়ে মেলে না পাসপোর্ট।
স্থানীয়দের অভিযোগ, দালাল চক্র আর অফিসের কিছু অসাধু কর্মকর্তা-কর্মচারীর যোগসাজশে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নেওয়া হচ্ছে বাড়তি টাকা। অতিরিক্ত টাকা না দিলে ফাইল ঘুরতে থাকে দিনের পর দিন।
পাসপোর্ট করতে আসা ভুক্তভোগী মো.বাহাদুর জানান, আমাদের এমন ভাবে ধরে তাদের মাধ্যমে নাকরার কোন সুযোগ নেই। দালালের শরণাপন্ন না হয়ে আমরা নিজেরাই আবেদন নিজেই লিখেছি তার পরও আমার ১১ শত টাকা দিতে হয়েছে।এরা ঘুরিয়ে ফিরিয়ে টাকা নেবেই।দালালদের মাধ্যমে আবেদন করলে সহজেই মেলে পাসপোর্ট।
এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বরগুনা জেলা পাসপোর্ট অফিসের কর্মকর্তা জাকির হোসেন বলেন, অফিসের অনিয়ম দুর্নীতি আর দালাল চক্রের প্রতিরোধে সবসময় তারা সচেষ্ট রয়েছেন।

আপনার মতামত জানানঃ