বাগদাদে বিক্ষোভকারীদের ওপর অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ১৯ জন নিহত

প্রকাশিতঃ ৫:৫৯ অপরাহ্ণ, শনি, ৭ ডিসেম্বর ১৯

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে বিক্ষোভকারীদের ওপর অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের হামলায় কমপক্ষে ১৯ জন নিহত হয়েছেন। শুক্রবার (০৬ ডিসেম্বর) বাগদাদে বিক্ষোভের মূলকেন্দ্র তাহরির স্কয়ারে এ হামলার ঘটনা ঘটে বলে হাসপাতাল ও নিরাপত্তা বাহিনীর বরাত দিয়ে জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।
নিহতদের মধ্যে তিন পুলিশ কর্মকর্তাও আছেন বলে জানায় নিরাপত্তা বাহিনী। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, তাহরির স্কয়ারের কাছে আল-সিনাক সেতুর কাছাকাছি এক ভবনে অবস্থান করা বিক্ষোভকারীদের লক্ষ্য করে পিকআপ ট্রাক থেকে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা হঠাৎ গুলিবর্ষণ করেন।
এসময় তিন পুলিশ কর্মকর্তাসহ ১৯ জন নিহত ও ৭০ জনের বেশি আহত হয়েছেন। নিহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে হাসপাতাল সূত্রে আশঙ্কা জানানো হয়।
ইরাকের সাবেক প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল মাহদির পদত্যাগের পর শুক্রবার ইরাকের চলমান বিক্ষোভের সহিংসতম ঘটনা ঘটল। এদিকে শুক্রবার, ইরাকের দক্ষিণে শিয়াদের কাছে পবিত্র কারবালা শহরের মসজিদে দেশটির শীর্ষ শিয়া নেতা আয়াতুল্লাহ আলী আল-সিস্তানির পক্ষ থেকে লিখিত এক খুতবায় বিক্ষোভের সমর্থন দিয়ে জানানো হয়, প্রকৃত সংস্কারের জন্য তারা (বিক্ষোভকারীরা) এক হাতিয়ার।
অবশ্য বিক্ষোভকারীদের সহিংসতা থেকে দূরে থাকার জন্য সতর্ক করে এ খুতবায় বলা হয়, ‘বিক্ষোভকারীদের উচিত হবেনা সহিংসতা, বিশৃঙ্খলা ও নাশকতা জড়িয়ে পড়া।’ কোনো প্রকার বিদেশি হস্তক্ষেপ ছাড়া ইরাকের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করার জন্য এ খুতবার মাধ্যমে তিনি আহ্বান জানান।
অক্টোবরের শুরু থেকে ইরাকজুড়ে উন্নত জীবনযাপন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি এবং দুর্নীতি বন্ধের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু হয়। বিক্ষোভের পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী আদেল আবদুল মাহদির পদত্যাগ করা সত্ত্বেও বিক্ষোভ অব্যাহত আছে।
ইরাকের হাইকমিশন ফর হিউম্যান রাইটসের তথ্য অনুসারে, দু’মাসের এ বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৪৬০ জনের মত নিহত ও ১৭ হাজারের উপর আহত হয়েছেন।

আপনার মতামত জানানঃ