বিদ্যুৎ-পানির দাম বাড়ানো ‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’

প্রকাশিতঃ ৫:০০ অপরাহ্ণ, শনি, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকঃ হঠাৎ করে বিদ্যুৎ ও পানির দাম বাড়ানো ‘মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা’ বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

শনিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর একটি হোটেলে জাতীয় ছাত্রসমাজ কেন্দ্রীয় কমিটির পরিচিতি ও সাধারণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জি এম কাদের বলেন, বিদ্যুৎ ও পানির দাম না বাড়িয়ে বিষয়টি পুনরায় বিবেচনা করতে পারে সরকার। ভর্তুকি কমাতেই বিদ্যুৎ ও পানির দাম বাড়ানো হয়েছে। কিন্তু দেশের হতদরিদ্র মানুষের সুবিধার কথা বিবেচনা করেই তো সরকার ভর্তুকি দেয়।

তিনি বলেন, বিদ্যুতের দাম বাড়াতে উৎপাদন, পরিবহন ও মার্কেটিংয়ের খরচ বাড়ে। এতে পণ্যের মূল্য অনেক বেড়ে যাবে। তাই বিদ্যুৎ ও পানির দাম না বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান তিনি।

জাপা চেয়ারম্যান বলেন, এমনিতেই দেশের মানুষ দ্রব্যমূল্য বাড়ায় দিশেহারা, তাই বিদ্যুতের দাম বাড়ানো ঠিক হবে না। বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস মহামারী রূপে ছড়িয়ে পড়ছে। তাই ঘনবসতি ও দরিদ্র দেশ হিসেবে সরকারকে আগাম প্রস্তুতি নিতে হবে।

তিনি বলেন, করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় জাতীয় পার্টি সরকারকে প্রয়োজনীয় সব সহায়তা করতে প্রস্তুত।

জাতীয় ছাত্রসমাজের কেন্দ্রীয় সভাপতি ইব্রাহীম খান জুয়েলের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আল মামুনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরও বক্তব্য রাখেন পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, আলমগীর সরকার লোটন, জহিরুল ইসলাম জহির, চেয়ারম্যানের উপদেষ্টা শাহ-ই-আলম, ডক্টর নুরুল আজহার শামীম, যুগ্ম-মহাসচিব গোলাম মোহাম্মদ রাজু, মো. নোমান মিয়া, আবদুল হামিদ ভাসানী, জাতীয় যুব সংহতির সাধারণ সম্পাদক ফখরুল আহসান শাহাজাদা, সাংগঠনিক সম্পাদক মো. হেলাল উদ্দিন, ইফতেখার আহসান হাসান, দপ্তর সম্পাদক সুলতান মাহমুদ, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিরু, কেন্দ্রীয় নেতা মাহমুদ আলম, আবু সাদেক সরদার বাদল, কিশোর কুমার, ফরিদ আলম ও কামরুল ইসলাম প্রমুখ।

আপনার মতামত জানানঃ