মুজিববর্ষ উদযাপনের নামে চাঁদা দাবি, গ্রেফতার ৩

প্রকাশিতঃ ২:৪১ অপরাহ্ণ, শনি, ৭ মার্চ ২০

নিউজ ডেস্কঃ নন্দনকাননে এক স্থপতির কাছে মুজিববর্ষ উদযাপনের নামে চাঁদা দাবির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছে ৩ চাঁদাবাজ। গ্রেফতারকৃতরা হলো-শেখ রিয়াজ আহম্মেদ প্রকাশ রাজু (৪০), শাহজাহান (৪৫), বাটুল বড়ুয়া প্রকাশ ডানো (৩৮)।

কোতোয়ালী থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, শুক্রবার (৬ মার্চ) অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়েছে।

থানা সূত্রে জানা গেছে, যুবলীগ নেতা হেলাল আকবর চৌধুরীর নামে চাঁদাবাজরা নন্দনকানন সানমার বিল্ডিং সংলগ্ন থ্রিএ হোম স্কেচ প্রতিষ্ঠানে গিয়ে গত ২ মার্চ স্থপতি প্রণত মিত্র চৌধুরীর কাছে মুজিববর্ষ উদযাপনের জন্য ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তারা অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে এবং প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেওয়ার হুমকি দেয়। এরপর ৬ মার্চ বিকাল ৪টার দিকে পুনরায় অফিসে গিয়ে প্রতিষ্ঠান মালিককে খোঁজাখুঁজি করে চাঁদার টাকা পরিশোধের তাগিদ দেয়।

এসময় পুলিশকে খবর দেওয়া হলে ঘটনাস্থল থেকে ২ জনকে ও পরে আরেকজনকে আটক করা হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় লিটন (৩৫) ও চান্দু প্রকাশ রনি (৪০) নামের দুই চাঁদাবাজ। এ ঘটনায় থ্রিএ হোম স্কেচ এর অফিস সহকারী মধুসূদন দাশ কোতোয়ালী থানায় মামলা করেছেন।

এনায়েতবাজার পুলিশ ফাঁড়ির এসআই মৃণাল কান্তি মজুমদার জানান, মুজিববর্ষ উদযাপনের নামে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবির কথা স্বীকার করেছে চাঁদাবাজরা। জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, গত ৪ মাস ধরে স্বপ্নচূড়া ও একতা যুব সংঘের নামে আগ্রাবাদ, নন্দনকানন ও আশপাশের এলাকায় বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান হতে চাঁদা উত্তোলন করেছে। ঘটনাস্থল থেকে ২জনকে আটকের পর তাদের স্বীকারোক্তি মতে ৬ মার্চ বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে নন্দনকানন জে কে টাওয়ারের ৯ম তলা হতে বাটুল বড়ুয়া প্রকাশ ডানোকে আটক করা হয়। তার হেফাজতে থাকা চাঁদা আদায়ে ব্যবহৃত ‘স্বপ্নচূড়া ও একতা যুব সংঘ’ নামের প্যাড জব্দ করা হয়েছে।

গ্রেফতার ৩ চাঁদাবাজকে শনিবার (৭ মার্চ) কারাগারে পাঠানো হচ্ছে এবং পলাতক আসামি লিটন ও চান্দু প্রকাশ রনিকে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত আছে বলে জানান ওসি মোহাম্মদ মহসীন।

আপনার মতামত জানানঃ