যশোরে সাবেক ছাত্রলীগ নেতাকে অস্ত্র গুলি মাদক সহ আটকের দাবি পুলিশের

মোঃ নাজমুল ইসলাম তাজ যশোর সদর প্রতিনিধিঃ ছাত্রলীগের সেই সাবেক নেতা সাইদুজ্জামান বাবু ওরফে দাতাল বাবুকে আটকের কথা শেষ পর্যন্ত স্বীকার করেছে পুলিশ। তবে তাকে অস্ত্র গুলিসহ আটক করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে।

পুলিশের দেয়া তথ্য অনুযায়ী ১৮ মামলার আসামি সাইদুজ্জামান বাবুকে বুধবার রাত ১২টার দিকে শহরের বিমানবন্দর রোডের একটি ক্রোকারিজের দোকানের সামনে থেকে আটক করা হয়েছে। তিনি আরবপুর এলাকার মৃত হাশেম আলীর ছেলে।

পুরাতন কসবা পুলিশ ফাঁড়ির এসআই আবুল হাসান জানিয়েছেন, গত বুধবার রাত ১২টার দিকে শহরের বিমানবন্দর সড়কের মেসার্স রাহিমা ক্রোকারিজ নামক দোকানের সামনে থেকে সাইদুজ্জামানকে আটক করা হয়। পরে তার কাছ থেকে একটি ওয়ান স্যুটার, এক রাউন্ড গুলি এবং একশ’ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট জব্দ করা হয়েছে। এই ঘটনায় কোতয়ালি থানায় অস্ত্র ও মাদক আইনে আলাদা দুইটি মামলা হয়েছে।

পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে, সাইদুজ্জামান বাবু ওরফে দাতাল বাবুর বিরুদ্ধে কোতয়ালি থানায় ইতোমধ্যে ১৮টি মামলা আছে। বুধবারের দুইটি মামলা দিয়ে মোট ২০টি মামলা হলো।

তবে বাবুর পরিবারের দাবি, অস্ত্র ও মাদক আইনে মামলা দুইটি মিথ্যা। বুধবার বেলা ১২টার দিকে পুলিশ তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করে। পরে পুলিশ অজ্ঞাত স্থানে আটকে রাখে।

বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে দুইটি মামলা দেয়া হয়েছে। তার আটকের বিষয়টি কোতয়ালি থানা ও ডিবি পুলিশ অস্বীকার করেছিল।

আপনার মতামত জানানঃ