লড়াইয়ের জয় পেয়েছেন ইংল্যান্ড

খেলা ডেস্কঃ সাউদ্যাম্পটনের মাঠ সেন্ট মেরিস স্টেডিয়ামের দর্শক তখনো ঠিক মতো আসনে বসেনি। তার আগেই গোল হজম করে বসে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। রেফারির প্রথম বাঁশি বাজার ৩৪ মিনিটের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে ইংলিশ সমর্থকদের।

অবশ্য গ্যারেথ সাউথেগেটের শিষ্যরা ম্যাচে ফিরতে সময় নেয়নি। ৮ মিনিটে এভারটন ডিফেন্ডার মিচেল কিনের পাস থেকে ইংল্যান্ডকে সমতায় ফেরান ম্যানচেস্টার সিটির ফরোয়ার্ড রহীম স্টার্লিং। এর পরপরই গোল উৎসবে মেতে ওঠে গত বিশ্বকাপের সেমিফাইনালিস্টরা।

১৯ মিনিটে স্টার্লিংয়ের পাস থেকে ইংল্যান্ডকে এগিয়ে দেন হ্যারি কেন। ৩৮ মিনিটে আত্মঘাতি গোল হজম করে বসে কসোভো। বিরতিতে যাওয়ার আগে দুই মিনিটের ব্যবধানে জোড়া গোল করে বসেন সাঞ্চো। ৪৪ মিনিটে স্টার্লিয়ের পাস থেকে প্রথম গোল করেন তিনি। এরপর প্রথমার্ধের যোগ করা প্রথম মিনিটে দ্বিতীয় গোল করেন এই বরুসিয়া ডর্টমুন্ড মিডফিল্ডার।

তবে নাটকটা জমে ওঠে দু’দল বিরতি থেকে ফেরার পর। ৪৯ মিনিটে দ্বিতীয় গোল করে কসোভোকে ম্যাচে ফেরাতে চেষ্টা করেন ভেলন বেরিশা। প্রথম গোলটিও করেছিলেন এই মিডফিল্ডার। ৫৫ মিনিটে পেনাল্টি থেকে কসোভোকে তৃতীয় গোল এনে দেন মুরিকি। এরপর বার কয়েক ইংলিশ রক্ষণভাগে ত্রাস ছড়ালেও আর গোলের দেখা পায়নি কসোভো।

মঙ্গলবার (১০ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাতে ২০২০ ইউরো বাছাই পর্বের ‘এ’ গ্রুপের ম্যাচটিতে ৫-৩ ব্যবধানের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ইংল্যান্ড। একই গ্রুপের আরেক ম্যাচে চেক প্রজাতন্ত্র ৩-০ গোলে হারিয়েছে মন্টেনিগ্রোকে।

আপনার মতামত জানানঃ