সবার থেকে আলাদা সাকিব

প্রকাশিতঃ ৮:৫৯ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২৪ সেপ্টেম্বর ১৯

স্পোর্টসঃ আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে বড় ব্যবধানে হেরেছে বাংলাদেশ দল। টেস্টে নবাগত দলটির বিপক্ষে এমন পরাজয় মেনে নিতে পারেনি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। ফলে সব ক্রিকেটারের জন্য জাতীয় লিগে খেলা বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। কিন্তু সাকিবের ক্ষেত্রে সেই কড়াকড়ি শিথিল করা হয়েছে।

আগামী অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহ থেকে শুরু জাতীয় ক্রিকেট লিগের ২০১৯-২০ মৌসুমের খেলা। আফগানদের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে করুণ পরিণতির কারণে বিসিবি ক্রিকেটারদের জন্য জাতীয় লিগে খেলা বাধ্যতামূলক করেছিল।

ত্রিদেশীয় সিরিজের পর একমাসের মতো সময় হাতে পাবে জাতীয় ক্রিকেট দলের সদস্যরা। এরপর আগামী ডিসেম্বরে ভারতের বিপক্ষে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে মাঠে নামবে টাইগারা। তাই বিসিবি’র এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন তামিম-মুশফিকদের মতো সিনিয়র ক্রিকেটাররা।

কিন্তু বিসিবি’র বাধ্যবাধকতার বাইরে রয়েছেন সাকিব আল হাসান। ত্রিদেশীয় সিরিজ শেষে ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ (সিপিএল) খেলতে ওযেস্ট ইন্ডিজে পাড়ি দেবেন টাইগারদের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক। বার্বাডোস ট্রাইডেন্টসের হয়ে তার খেলার কথা রয়েছে। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিসের বিপক্ষে ম্যাচের আগেই লিগের পয়েন্ট তালিকায় চতুর্থ স্থানে থাকা বার্বাডোজে যোগ দিবেন তিনি।

মঙ্গলবার (২৪ সেপ্টেম্বর) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুর আবেদীন নান্নু। তিনি বলেন, ‘সামনে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শুরু হবে। ত্রিদেশীয় সিরিজের পর লম্বা একটি বিরতি রয়েছে। সে কারণেই জাতীয় লিগে খেলা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। তবে সাকিব এর মধ্যে থাকছে না। সে তো সিপিএল খেলতে যাবে।’

অন্যদিকে সিপিএলে খেলার জন্য আফিফ হোসেনকে ছাড়পত্র দেয়নি বিসিবি। সিপিএল’র সপ্তম আসরে দল পেয়েছিলেন বাংলাদেশের তরুণ অলরাউন্ডার আফিফ। ২২ মে লন্ডনে অনুষ্ঠিত ড্রাফট থেকে তাকে দলে টানে সেন্ট কিটস অ্যান্ড নেভিস প্যাট্রিয়টস। তবে ত্রিদেশীয় সিরিজ শুরুর আগে তাকে ‘না’ করে দেয় বিসিবি।

আপনার মতামত জানানঃ