সোনারগাঁয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে এক যুবক নিহত

প্রকাশিতঃ ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, সোম, ২ ডিসেম্বর ১৯

Advertisements
নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে দু’পক্ষের সংঘর্ষে জাকির হোসেন (৩২) নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। এ সময় উভয়পক্ষের আরও ৫ জন আহত হয়েছে।রোববার (১ ডিসেম্বর) দিনগত রাত সাড়ে ১১টার দিকে সোনারগাঁয়ের বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের আনন্দবাজার আমিরাবাদ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত জাকির হোসেন বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়নের টেকপাড়া আমিরাবাদ গ্রামের মৃত আরজ আলীর ছেলে।
জানা যায়, উপজেলার বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেন ও নুর মিয়ার ছেলে আমির হোসেনের নেতৃত্বে দীর্ঘদিন ধরে মেঘনা থেকে অবৈধ বালু উত্তোলন করছে ২০-২৫ জনের একটি সিন্ডিকেট। এ সিন্ডিকেটের বালু উত্তোলনের টাকা ভাগাভাগি নিয়ে রোববার রাতে নবী হোসেন ও আমির হোসেনের দু’পক্ষের মধ্যে দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে উভয়পক্ষের লোকজন আগ্নেয়াস্ত্র ও দেশীয় অস্ত্র ও লাঠিসোটা নিয়ে সংষর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয়পক্ষের পাঁচজন আহত হয়। আহতদের সোনারগাঁ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে আমির হোসেন সমর্থক জাকিরকে আহত অবস্থায় ঢামেক হাসপাতালে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় টেকপাড়া আমিরাবাদ এলাকার নুর মিয়ার ছেলে আল আমিন (৩৩), ইয়ানুসের ছেলে আবু হানিফ (৩১) ও আইয়ুব আলী মেম্বারের ছেলে সিরাজসহ (৩৭) আরও পাঁচজন আহত হয়।
নিহতের ভাই মনির হোসেন জানান, বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেন ও আইয়ুব আলী মেম্বারের ছেলে সিরাজের নেতৃত্বে তার ভাই জাকিরকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকাণ্ডে জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে বিচার দাবি করছি।
অভিযুক্ত বৈদ্যেরবাজার ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি নবী হোসেনের মোবাইল এ যোগাযোগ করা হলে তার মোবাইল বন্ধ পাওয়া যায়।
সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান বাংলানিউজকে জানান, জাকির হোসেন নামে একজন খুন হওয়ার পর পুলিশের একটি টিম ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রয়েছে।

আপনার মতামত জানানঃ