নীলফামারীতে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে জমি দখলের অভিযোগ

আল-আমিন, নীলফামারী: নীলফামারীতে বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধভাবে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। গত বুধবার (০৩ আগস্ট/২২) সকালে জলঢাকা পৌরসভার বগুলাগাড়ী মিয়াপাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে সন্ত্রাশী কায়দায় লাঠি সোটা নিয়ে বিরোধপূর্ণ জমি দখল করে আমন ধানের চারা রোপন করেন এলাকার মৃত সামসুল হকের ছেলে মোঃ মোস্তো এবং মৃত মনছুর আলীর ছেলে মোঃ সিরাজুল ইসলাম ও মোঃ এনামুল হক।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, উপজেলার মাথাভাঙ্গা এলাকার মৃত মাওলানা আঃ গফুরের ছেলে আলহাজ¦ মোঃ হাবিবুল্লা সিদ্দিকী বগুলাগাড়ী মৌজার সি,এস খতিয়ান ৬০০, এস,এ খতিয়ান ৬৮৪ এবং ১১২৮ দাগে মোট ২২ শতক জমির মধ্যে ০১১ শতকের মধ্যে দক্ষিনাংশে ০৮ শতক জমির মালিক। দীর্ঘদিন ভোগদখলীয় অবস্থায় থাকার পর হঠাৎ করেই ওই জমির মালিকানাদাবী করে জবরদখলের চেষ্টা করেন বগুলাগাড়ী মিয়াপাড়া এলাকার মৃত সামসুল হকের ছেলে মোঃ মোস্তো এবং মৃত মনছুর আলীর ছেলে মোঃ সিরাজুল ইসলাম ও মোঃ এনামুল হক।

পরবর্তীতে আলহাজ¦ মোঃ হাবিবুল্লা সিদ্দিকী বাদী হয়ে নীলফাামরী বিজ্ঞ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তাদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-পি-২২৬/২২ ইং। আদালত মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত উভয় পক্ষকে শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখতে বলেন। সেইসাথে কোন পক্ষই এবং কাহারো দ্বারা বিরোধীয় সম্পত্তিতে আইন শৃংখলা পরিস্থিতির অবনতি ও সম্পত্তি নিয়ে কোন পক্ষেরই কোন প্রকার অজর আপত্তি থাকলে তা বিজ্ঞ আদালতের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা হবে বলে আইনি নোটিশ প্রদান করেন। একই সাথে আদালত দুইপক্ষকে জমিতে না যাওয়ার জন্য নিষেধাজ্ঞা জারি করে এবং জলঢাকা থানার কর্মকর্তাকে আইনশৃঙ্খলা বজায় রাখার জন্য নির্দেশ দেয়। কিন্তু আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধ ভাবে বিরোধপূর্ণ জমি দখল করে আমন ধানের চারা রোপন করেন।

তাই অবৈধভাবে জমি দখলকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী ভূক্তভোগী আলহাজ¦ মোঃ হাবিবুল্লা সিদ্দিকী ও তার পরিবারের। জানতে চাইলে জলঢাকা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ফিরোজ কবির বলেন, আমার কাছে এখনো লিখিত অভিযোগ আসে নাই।