পাঁচ গোলে শেষ চারে রোনালডোর দল

খেলা ডেস্কঃ আগেই ভেঙে গেছে লিগের শিরোপা স্বপ্ন। ৯ মৌসুমের জুভেন্টাসের রাজত্ব ভেঙে দিয়ে আসনে বসেন সিরিআয় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ইন্টার মিলান। তা হিসেব থেকে বাদই দেওয়া যাক, লিগের চ্যাম্পিয়ন্সে জায়গা করে নিতে শীর্ষে ৪ চারে থাকা চাই, সেটাও ক্লাবটি জন্য এবার বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

শেষ দিকে এসে শেষ চারের বাহিরে চলে গিয়েছিল ক্রিশিয়ানো রোনালডোর দল। তবে শনিবার সিরিআর ম্যাচে শিরোপাজয়ী ইন্টার ইন্টার মিলানকে ৩-২ গোলে হারিয়ে শেষ চারে জায়গায় ফিরছে জুভেন্টাস। বাঁচিয়ে রেখেছে চ্যাম্পিতন্স লিগে খেলার আশা।

জুভেন্টাস স্টেডিয়ামে দুর্দান্ত এক ম্যাচই উপভোগ করেছেন ফুটবলপ্রেমীরা। দুই দলের মধ্যে হয়েছে তুমুল লড়াই। দুই দলের একজন করে দেখেছেন লাল কার্ড। তিনটি গোলে রেফারিকে নিতে হয়েছে ভিএআরের সাহায্য। দুই দল মিলিয়ে পেনাল্টিও পেয়েছে তিনটি। এমনই ঘটনাবহুল ম্যাচে শেষ হাসি হেসেছে জুভেন্টাস।

ম্যাচের ২৪ মিনিটে এগিয়ে যায় জুভেন্টাস। যেই গোলটিতেও ছিল নাটকীয়তার ছোঁয়া। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো পেনাল্টি নিলে প্রথম দফায় সেটি ঠেকিয়ে দিয়েছিলেন সামির হানদানোভিচ। ফিরতি বল পেয়ে সেটি জালে জড়ান পর্তুগিজ যুবরাজ।

৩৫ মিনিটে রোমেলু লুকাকুর পেনাল্টিতে সমতায় ফেরে ইন্টার। প্রথমার্ধে যোগ করা সময়ের তৃতীয় মিনিটে জুভেন্টাসকে ফের এগিয়ে দেন হুয়ান কুয়াদ্রাদো।

দ্বিতীয়ার্ধে ৫৫ মিনিটের মাথায় রদ্রিগো বেন্তাকুর লাল কার্ড দেখলে দশজনের দলে পরিণত হয় জুভেন্টাস। তাদের বিপদ আরও বাড়ে ৮৩ মিনিটে জর্জো চিয়েল্লিনির আত্মঘাতী গোলে। ২-২ সমতায় ফেরে ইন্টার।

তবে এর পাঁচ মিনিট পর আরেকটি পেনাল্টিতে ভাগ্য খুলে যায় জুভেন্টাসের। সফল স্পট কিকে নিজের দ্বিতীয় গোল তুলে নিয়ে দলকে মহামূল্য তিনটি পয়েন্ট এনে দেন কুয়াদ্রাদো।

এই জয়ের পর ৩৭ ম্যাচ শেষে জুভেন্টাসের পয়েন্ট ৭৫। পাঁচে থাকা নাপোলির এক ম্যাচ কম খেলে ৭৩ পয়েন্ট। ৩৬ ম্যাচ খেলে জুভেন্টাসের সমান ৭৫ পয়েন্ট তিনে থাকা এসি মিলানেরও।

৩৭ ম্যাচে ৮৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে চ্যাম্পিয়ন হওয়া ইন্টার মিলান। সমান ম্যাচে ৭৮ পয়েন্ট আটালান্টার। হাতে এক ম্যাচ। অর্থাৎ রোনালদোর দলের সুযোগ রয়েছে এখনও দুইয়ে ওঠে লিগ শেষ করার। শঙ্কা আছে সেরা চারের বাইরে ছিটকে পড়ারও।