প্রতারণা মামলায় দ্বিতীয়বারের জিজ্ঞাসাবাদ এড়ালেন জ্যাকলিন

বিনোদন ডেস্কঃ শ্রীলঙ্কান সুন্দরী ও বলিউড অভিনেত্রী জ্যাকলিন ফার্নান্ডেজ আর্থিক প্রতারণার মামলায় দ্বিতীয়বারের জিজ্ঞাসাবাদ এড়ালেন। এর আগে ৩০ আগস্ট ইডির দপ্তরে প্রায় ৫ ঘন্টার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছিল তাকে। পরে দ্বিতীয়বারের মতো শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) তাকে জেরা করার কথা জানান ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (ইডি)।

আর্থিক প্রতারণার মামলায় ফেঁসেছেন এ বলিউড অভিনেত্রী। জানা যায়, খোয়া গেছে প্রায় ২০০ কোটি টাকা। এদিন রেকর্ড করা হয় অভিনেত্রীর জবানবন্দি।

সূত্রে জানা যায়, ৩৬ বছর বয়সী অভিনেত্রীকে শনিবার দ্বিতীয়বারের জিজ্ঞাসার জন্য ডাকা হলে ইডির দপ্তরে উপস্থিত হননি তিনি।

আরো জানা যায়, রানবাক্সির মতো বড় কোম্পানির প্রোমোটার শিবিন্দর সিং ও মালবিন্দর সিংকের পরিবারকে ২০০ কোটি টাকার প্রতারণা করার অভিযোগ রয়েছে সুকেশের বিরুদ্ধে। সুকেশ চন্দ্রশেখর নামে ওই ব্যক্তি অভিনেত্রীর কাছ থেকেও টাকা নিয়েছেন। সাক্ষী হিসেবে যার জেরা চলছিল, সে নিজেই প্রতারণার শিকার।

সূত্রে আরো জানা যায়, সুকেশ চন্দ্রশেখর ও তার প্রেমিকা লীনা পালের কথায় ফেঁসে গিয়ে জ্যাকলিন খুইয়েছেন প্রচুর অঙ্কের টাকা। অভিনেত্রীর সঙ্গে কথা বলে ইডির হাতে এসেছে বহু জরুরি তথ্য। জেলে বসেই এই কাজ চালিয়ে যাচ্ছিলেন সুকেশ। আপাতত রোহিনী জেলে আছে অপরাধী।

দিল্লি পুলিশের আর্থিক অপরাধ দমন শাখা সুকেশ ও অন্য কয়েকজনের বিরুদ্ধে প্রতারণা, ষড়যন্ত্র ও ২০০ কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করে। এই মামলার সূত্রে গত ২৪ আগস্ট তদন্তকারীরা চেন্নাইয়ে সাড়ে ৮২ লাখ রূপি মূল্যের একটি বাংলো, এক ডজন বিলাসবহুল গাড়ি বাজেয়াপ্ত করেছে।

তদন্তে যে সমস্ত তথ্য মিলেছে, তার ওপরে ভিত্তি করেই জ্যাকলিনকে জিজ্ঞাসাবাদ করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে।