ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  আন্তর্জাতিক   »   সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার দেশ হাজার বছরব্যাপী যুদ্ধের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত

সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার দেশ হাজার বছরব্যাপী যুদ্ধের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত

September 25, 2016 - 7:47 AM

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের যুদ্ধ যুদ্ধ উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এর মধ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি পক্ষান্তরে জানিয়ে দিলেন, সন্ত্রাসী রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে তার দেশ হাজার বছরব্যাপী যুদ্ধের চ্যালেঞ্জ নিতে প্রস্তুত।

কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে হামলা নিয়ে প্রথমবার মুখ খুলে পাকিস্তানকে একহাত নিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেছেন, উরি হামলায় সেনাদের আত্মদান বৃথা যাবে না।

মোদি আরো বলেন, আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে পাকিস্তানকে বিচ্ছিন্ন করতে সব ধরনের উদ্যোগ নেবে ভারত।

পাকিস্তানকে উদ্দেশ করে মোদি বলেন, একটি দেশ এশিয়াকে রক্তপাত ও সন্ত্রাসী অঞ্চল বানাতে চাইছে। কাশ্মীর ইস্যুতে পাকিস্তানের নেতারা সন্ত্রাসী হোতাদের হাতে তৈরি বক্তব্য পাঠ করছেন।

টাইমস অব ইন্ডিয়া অনলাইনের এক খবরে রোববার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

শনিবার কেরালা রাজ্যের কোঝিকোদে এক সমাবেশে বক্তব্য দেওয়ার সময় প্রধানমন্ত্রী মোদি পাকিস্তানকে কড়া ভাষায় হুঁশিয়ার করেন। তিনি বারবার উল্লেখ করেন, উরি সেনাঘাঁটির হামলার কথা ভারত কখনো ভুলবে না। দেশের জন্য যারা মারা গেছেন, তাদের আত্মত্যাগকে মনে রাখবে জাতি।

পাকিস্তানের উদ্দেশে মোদি বলেন, ‘আমরা শিগগির আপনাদের বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করব। আপনাদের একঘরে করে রাখব… সন্ত্রাসীরা পরিষ্কারভাবে জানুক, ভারত কখনো উরির ঘটনা ভুলবে না… ভারত কখনো সন্ত্রাসের সামনে মাথা নথ করেনি, এখনো করবে না।’

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে সরাসরি কিছু বলেননি মোদি। তবে তিনি অভিযোগ করেছেন, সন্ত্রাস গ্রাস করেছে পাকিস্তান ও প্রধানমন্ত্রী নওয়াজকে। তিনি বলেন, বিশ্বের কেউ বিশ্বাস করেন না, পাকিস্তানের বর্তমান শাসনকাঠামো সে দেশ থেকে সন্ত্রাসী রপ্তানি বন্ধ করতে সক্ষম।

পাকিস্তানের সমাজ, রাজনীতি ও অর্থনীতি নিয়ে সমালোচনা করেন মোদি। তিনি বলেন, ভারত সফটওয়্যার রপ্তানি করে, আর পাকিস্তান করে সন্ত্রাস রপ্তানি- এই হলো পার্থক্য।

ভারত শাসিত কাশ্মীরের উরি সেনাঘাঁটিতে পাকিস্তান থেকে অনুপ্রবেশকারী সন্ত্রাসীদের হামলা, কাশ্মীরের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে জাতিসংঘে নওয়াজ শরিফের অভিযোগ এবং দুই দেশের মন্ত্রী ও কূটনীতিকদের মধ্যে কথা চালাচালির পর ভারতের অবস্থান পরিষ্কার করলেন মোদি।

আপনার মতামত জানানঃ