ক্রাইম পেট্রোল বিডি  »  খেলাধুলা   »   ‘সিরিজটা আমরা এখনো জিততে পারি’

‘সিরিজটা আমরা এখনো জিততে পারি’

October 8, 2016 - 4:17 PM

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে একপর্যায়ে জয়ের সুবাস পেয়েও শেষটায় তালগোল পাকিয়ে হেরেছে বাংলাদেশ। তবে এই হারেই সবকিছু শেষ হয়ে যায়নি। বাংলাদেশ এখনো সিরিজ জিততে পারে বলে বিশ্বাস দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনের।

৩১০ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে একপর্যায়ে বাংলাদেশের দরকার ছিল ৫২ বলে ৩৯ রান। হাতে ৬ উইকেট। তখনো উইকেটে ১০৮ রানে অপরাজিত ইমরুল কায়েস, ৭৯ রানে ব্যাটিংয়ে সাকিব আল হাসান। কিন্তু মাত্র ১৭ রানে শেষ ৬ উইকেট হারিয়ে প্রায় জেতা ম্যাচটা বাংলাদেশ হেরে যায় ২১ রানে।

ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে বাংলাদেশ নতুন উদ্যমে জয়ের জন্য খেলবে বলেই মনে করেন ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ। শনিবার মিরপুরে সাংবাদিকদের খালেদ মাহমুদ বলেন, ‘কালকে যে সকল ছোটখাট ভুল ছিল, তা থেকে শিক্ষা নিয়ে নতুন উদ্যমে জয়ের জন্যই খেলব। এখন আমাদের অনেক কিছু পাওয়ার আছে, ১-০তে পিছিয়ে থাকলেও এটা ২-১ হতে পারে। সে বিশ্বাস আমাদের সকল খেলোয়াড়দের মাঝেই আছে। এসব দলের সাথে খেলতে গেলে চাপ থাকবেই, কারণ তারাও পেশাদার দল। ওয়ানডে দল হিসেবে দারুণ ভালো একটা দল। তবে আমরা বিশ্বাস করি সিরিজটা আমরা এখনো জিততে পারি।’

প্রথম ম্যাচে শেষদিকে বাংলাদেশের ব্যাটিং ধস নিয়ে জাতীয় দলের প্রাক্তন এই পেসার বলেন, ‘ওই সময় ইমরুলের ইনজুরি ও জুটিটা ভেঙে যাওয়াটা একটু চাপ হয়ে গেছে। আমাদের টেইলএন্ডার যারা আছে, মাশরাফি এ রকম অনেক ম্যাচ জিতিয়েছে এমন আছে। রুবেল (মোশাররফ হোসেন) ঘরোয়া লিগে অনেক ভালো ব্যাটিং করে। কালকে হয়তো ওর দিন ছিল না। আমরা তাসকিন আর শফিউলের ওপর ওইভাবে চিন্তা করতে পারি না। ফিরে আসা অবশ্যই সম্ভব। একটা দিন পুরো সময় ক্রিকেটের বাইরেই আছি। অসম্ভব কিছু না। যদি ইংল্যান্ডের সঙ্গে পার্থক্য করেন তাহলে ওদের থেকে অনেক পিছিয়ে আছি, এমন কিছু না।’

বড় দলের বিপক্ষে জিততে হলে ব্যাটসম্যানদেরই দায়িত্ব নিয়ে খেলতে হবে বলে মনে করেন খালেদ মাহমুদ, ‘আমার মনে হয় এসকল বড় দলের বিপক্ষে জিততে হলে ব্যাটসম্যানদেরই জিতাতে হবে। আপনি টেইলের ওপর ডিপেন্ড করে জিতাতে পারবেন না। প্রথম সাতজন ব্যাটসম্যান যারা ব্যাটসম্যান হিসেবে খেলে, এটা তাদেরই দায়িত্ব। কালকে কিন্তু আমাদের সব রানটাই আমাদের ব্যাটসম্যান থেকে এসেছে। ফিনিসিংটা হয়তো ওইভাবে হয়নি। সাকিব যদি ওই সময় আউট না হতো বা ওই জুটিটা না ভাঙত তাহলে হয়তো তিন ওভার আগেই ম্যাচ জিততাম। আবার সাকিব ওইভাবে ব্যাটিং না করলে ম্যাচটা সে অবস্থায় আসতোও না। আমাদের রানরেট (আস্কিং রানরেট) ছয়ের ওপর ছিল, এ রান রেটটা ওর আক্রমণাত্মক ব্যাটিংয়েই পাঁচের নিচে চলে এসেছিল।’

নিজেদের সেরাটা খেলতে পারলেই ইংল্যান্ডকে হারানো সম্ভব বলে বিশ্বাস খালেদ মাহমুদের, ‘আক্রমণাত্মক ক্রিকেটটাই খেলবে বাংলাদেশ। আমার মনে হয় ভয়হীন ক্রিকেটটাই এখন আমাদের মূলমন্ত্র। যারাই খেলুক যে কম্বিনেশনেই খেলা হোক আমরা আমাদের সেরাটা খেলতে পারলে আমরা ইংল্যান্ডকে হারাতে পারব।’

একাদশে কোনো পরিবর্তন আসবে কি না, এমন প্রশ্নে ম্যানেজার বলেন, ‘অবশ্যই হতে পারে। আমার কথা হচ্ছে দল পরিবর্তন করলে আমরা জিতব, পরিবর্তন না করলে জিতব না, এমনটা না। টেকনিক্যাল দিকগুলো আমাদের কোচ দেখবে। কোথায় কী দরকার তা অধিনায়কের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিবে।’

আপনার মতামত জানানঃ